হাইলাইট
।।ভোটের জন্য বহুরূপী সাজলেও না জানেন রবীন্দ্রনাথ, না জানেন মহাত্মা গান্ধি।।কলকাতা হাইকোর্টের তৃণমূল বিরোধী অবস্থানকে সমর্থন প্রধানমন্ত্রীর।।চরম অটোক্র্যাট মোদি ৮০000 হাজার টাকার ব্যাঙের ছাতা খান।।সুপ্রিম কোর্টের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে চরম বিতর্কিত হিন্দু ধর্মের বিজ্ঞাপন।।এই কদর্য রিমেক ভাজপাকেই মানায়।।প্রধানমন্ত্রীর পদ ব্যবহার করে বিজেপির প্রচার করছেন মো।।ভাজপা প্রার্থী হিরণের ডক্টরেট ডিগ্রি জাল।।বিজেপির দিকে ভোট সুইং হবে না, মোদিকে চ্যালেঞ্জ, দম থাকলে আমার সঙ্গে মুখোমুখি বিতর্ক সভায় বসুন।।থেকে যাওনা গো।।মমতার তরুণ তুর্কি দেবাংশু নীল ঘোড়ায়।।সর্বত্র ভাজপা হারছে, না হলে বলে জগন্নাথদেবও মোদির ভক্ত।।বিজেপির একটা বুথে মদ খাওয়ার খরচ ৫০০০ টাকা।।৬ মাসের মধ্যে শুরু হবে ঘাটাল মাস্টারপ্ল্যানের কাজ।।পুরুলিয়ায় মোদির মঞ্চে ভারত সেবাশ্রমের সাধু।।১ মের বদলে ১ এপ্রিল থেকে ডিএ দেওয়ার সিদ্ধান্ত
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

ভোটের জন্য বহুরূপী সাজলেও না জানেন রবীন্দ্রনাথ, না জানেন মহাত্মা গান্ধি

ভোটের শেষ লগ্নে মোদিবাবুর মত, গান্ধি সিনেমা তোলা না হলে সারা বিশ্ব গান্ধির নামও জানত না ৩৬৫ দিন। ১০ অগাস্ট ২০০৭ : দক্ষিণ আফ্রিকার মানুষের

Read More »
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

কলকাতা হাইকোর্টের তৃণমূল বিরোধী অবস্থানকে সমর্থন প্রধানমন্ত্রীর

রাজ্যসঙ্গীত গাইতে গিয়ে পদে পদে হোচট খেলেন মোদী ৩৬৫দিন। কলকাতা হাইকোর্টের তৃণমূল বিরোধী রায়কে সমর্থন প্রধানমন্ত্রীর। মঙ্গলবার সপ্তম দফার নির্বাচনের প্রচারে বাংলায় এসে তৃণমূল বিরোধী

Read More »
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

চরম অটোক্র্যাট মোদি ৮০000 হাজার টাকার ব্যাঙের ছাতা খান

মোদির স্বৈরতান্ত্রিকত আচরণের বিরুদ্ধে মমতার গর্জন ৩৬৫ দিন। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি লাঞ্চের খরচ প্রায় চার লক্ষ টাকা। উনি যে ব্যাঙের ছাতা বা মাশরুম খান সেটি

Read More »
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

সুপ্রিম কোর্টের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে চরম বিতর্কিত হিন্দু ধর্মের বিজ্ঞাপন

এবার ঘোমটার আড়ালে ভাজপার খ্যামটা নাচ,নিউজ মিডিয়া ছেড়ে সোশাল মিডিয়ায় বিপুল টাকা ঢেলে ৩৬৫ দিন। মোদী হ্যায় তো মুমকিন হ্যায়! তার জেরে জাতীয় নির্বাচন কমিশন

Read More »
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

এই কদর্য রিমেক ভাজপাকেই মানায়

গৌতম ঘোষের ধিক্কার গৌতম ঘোষ। ৩৬৫ দিন। সত্যজিৎ রায়ের হীরক রাজার দেশে ছবিকে ,তার সংলাপকে, সেটকে এবং চরিত্রদের বিকৃত করে যে রাজনৈতিক বিজ্ঞাপন বিজেপি নির্মাণ

Read More »
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

প্রধানমন্ত্রীর পদ ব্যবহার করে বিজেপির প্রচার করছেন মো

মমতার গর্জন, বিজ্ঞাপনেও লিখছে প্রধানমন্ত্রীর রোড শো ৩৬৫ দিন। আগামীকাল মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদির রোড শো উত্তর কলকাতায়। নির্বাচন চলাকালীন প্রধানমন্ত্রীর ব্যাচ লাগিয়ে এই রোড

Read More »
Facebook
Twitter
LinkedIn
WhatsApp
Email
Print

দেবকে পাশে নিয়ে ঘাটালের র‍্যালিতে অভিষেক, রাঙিয়ে দিলেন গোলাপের পাপড়ি


৩৬৫ দিন।
ঘাটালের ভাজপা প্রার্থী হিরণ চট্টোপাধ্যায় কয়েক মাস আগেও তৃণমূলে আসতে চেয়েছিলেন। কিন্তু তাঁকে তৃণমূলে নেওয়া হয়নি। রবিবার ঘাটালের তৃণমূল প্রার্থী দেবের সমর্থনে প্রচারে গিয়ে তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বীকে নিয়ে এমনই মন্তব্য করলেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক। রবিবার উদ্বেলিত জনতার মাঝে ঘাটালে দেবকে পাশে নিয়ে অভিষেক বলেন, ‘এখানে যাঁকে বিজেপি দাঁড় করিয়েছে, সে ছ’মাস-আট মাস আগে আমার দফতরে এসেছিল।’ অভিষেক যখন এই মন্তব্য করেন, তাঁর পাশে দাঁড়ানো দেবকে হাসতে দেখা যায়। অভিষেক বলেন, ‘তৃণমূলে ঢোকার জন্য এসেছিল। আমি দরজা বন্ধ করে দিয়েছি। ঢুকতে দিইনি। তারও সিসিটিভি ফুটেজ আছে। তাকেও বলব, মিথ্যা কথা বলো, কিন্তু বেশি বলতে নেই।’ তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদকের কটাক্ষ, ‘খড়্গপুর থেকে বিধানসভা ভোটে ২০২১ সালে জয়ী হয়েছেন। চলে যান খড়্গপুরে। সেখানে ১০ পয়সার উন্নয়ন করেছেন কি না দেখে আসুন। সে দেবকে হারাবে! আমি বলব, আগে খড়্গপুর সামলাও। পরে তুমি ঘাটাল নিয়ে ভেব।’ উল্লেখ্য, দেবের সমর্থনে ভোটের প্রচারে গিয়ে এ নিয়ে আরও ঝাঁঝালো আক্রমণ করেন অভিষেক। তিনি বলেন, ‘বিজেপির লোকেরাই চায় না এ রকম দু’নম্বরি লোককে, যার পায়ের নখ থেকে শুরু করে মাথার চুল পর্যন্ত দু’নম্বরি।’ তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক আরও বলেন, ‘আমি তো ঢুকতে দিইনি। কিন্তু ও বলেছে, ‘আমি অভিষেক ব্যানার্জীর অফিসে যাইনি’ আমি আবার বলছি, সংবাদমাধ্যমের কাছে বলো যে, ‘আমি যাইনি।’ তাহলে আমিও সিসিটিভি ফুটেজটা ছাড়ব। তখন বোঝা যাবে কত ধানে কত চাল।’

ঘাটাল মাস্টার প্ল্যান
২৪ এর নির্বাচনে ঘাটাল জিততে শাসকদলের তুরুপের তাস ঘাটাল মাস্টার প্ল্যান। বহু বছরের এই প্রকল্পের বাস্তবায়নকে সামনে রেখেই ভোট করতে বদ্ধপরিকর তৃণমূল। রবিবাসরীয় ঘাটালে তৃণমূলের তারকা প্রার্থী দেবের সমর্থনে রোড শো থেকে সেকথাই মনে করিয়ে দিলেন দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক। তিনি বললেন, ‘ঘাটালের একেকটি ভোট দিন ঘাটাল মাস্টার প্ল্যানের জন্য। এত বছর ধরে কেন তা বাস্তবায়িত হল না? কেন্দ্রের তো টাকা দেওয়ার কথা। দেয়নি। রাজ্য সরকার নিজের টাকায় এই ঘাটাল মাস্টার প্ল্যান করছে। মনে রাখবেন, আপনাদের সুবিধার জন্য সবসময়ে পাশে আছে রাজ্যের তৃণমূল সরকার।’ পাশাপাশি বিদ্যাসাগরের জন্মস্থানে দাঁড়িয়ে অভিষেক মনে করিয়ে দিলেন উনিশের ভোটের আগে কলকাতায় অমিত শাহর রোড শো থেকে বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙার প্রসঙ্গ। এদিন অভিষেক ঘাটালের রোড শো থেকে জানালেন, ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যেই ঘাটাল মাস্টার প্ল্যানের কাজ শেষ হবে। উল্লেখ্য, তৃণমূলের প্রাক্কালিকা ঘোষণার পর থেকে এই ঘাটালের মাটি কামড়ে পড়ে রয়েছেন দেব। রোজি একাধিক এলাকায় গিয়ে জনসংযোগ ছোট ছোট সভা করছেন। পাশাপাশি সংগঠনের নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করে স্ট্রাটেজি তৈরি করছেন। আর সর্বত্রই দারুন সাড়া পাচ্ছেন। এদিন খড়া এলাকার অরবিন্দ স্টেডিয়াম থেকে প্রায় তিন কিলোমিটার রোড শো করেন দেব ও অভিষেক। সেখান থেকে ঘাটাল বাসটার প্রাণের জন্য দিদিকে আর অভিষেককে ধন্যবাদ জানান দেব।

Scroll to Top