হাইলাইট
।।ভোটের জন্য বহুরূপী সাজলেও না জানেন রবীন্দ্রনাথ, না জানেন মহাত্মা গান্ধি।।কলকাতা হাইকোর্টের তৃণমূল বিরোধী অবস্থানকে সমর্থন প্রধানমন্ত্রীর।।চরম অটোক্র্যাট মোদি ৮০000 হাজার টাকার ব্যাঙের ছাতা খান।।সুপ্রিম কোর্টের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে চরম বিতর্কিত হিন্দু ধর্মের বিজ্ঞাপন।।এই কদর্য রিমেক ভাজপাকেই মানায়।।প্রধানমন্ত্রীর পদ ব্যবহার করে বিজেপির প্রচার করছেন মো।।ভাজপা প্রার্থী হিরণের ডক্টরেট ডিগ্রি জাল।।বিজেপির দিকে ভোট সুইং হবে না, মোদিকে চ্যালেঞ্জ, দম থাকলে আমার সঙ্গে মুখোমুখি বিতর্ক সভায় বসুন।।থেকে যাওনা গো।।মমতার তরুণ তুর্কি দেবাংশু নীল ঘোড়ায়।।সর্বত্র ভাজপা হারছে, না হলে বলে জগন্নাথদেবও মোদির ভক্ত।।বিজেপির একটা বুথে মদ খাওয়ার খরচ ৫০০০ টাকা।।৬ মাসের মধ্যে শুরু হবে ঘাটাল মাস্টারপ্ল্যানের কাজ।।পুরুলিয়ায় মোদির মঞ্চে ভারত সেবাশ্রমের সাধু।।১ মের বদলে ১ এপ্রিল থেকে ডিএ দেওয়ার সিদ্ধান্ত
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

ভোটের জন্য বহুরূপী সাজলেও না জানেন রবীন্দ্রনাথ, না জানেন মহাত্মা গান্ধি

ভোটের শেষ লগ্নে মোদিবাবুর মত, গান্ধি সিনেমা তোলা না হলে সারা বিশ্ব গান্ধির নামও জানত না ৩৬৫ দিন। ১০ অগাস্ট ২০০৭ : দক্ষিণ আফ্রিকার মানুষের

Read More »
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

কলকাতা হাইকোর্টের তৃণমূল বিরোধী অবস্থানকে সমর্থন প্রধানমন্ত্রীর

রাজ্যসঙ্গীত গাইতে গিয়ে পদে পদে হোচট খেলেন মোদী ৩৬৫দিন। কলকাতা হাইকোর্টের তৃণমূল বিরোধী রায়কে সমর্থন প্রধানমন্ত্রীর। মঙ্গলবার সপ্তম দফার নির্বাচনের প্রচারে বাংলায় এসে তৃণমূল বিরোধী

Read More »
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

চরম অটোক্র্যাট মোদি ৮০000 হাজার টাকার ব্যাঙের ছাতা খান

মোদির স্বৈরতান্ত্রিকত আচরণের বিরুদ্ধে মমতার গর্জন ৩৬৫ দিন। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি লাঞ্চের খরচ প্রায় চার লক্ষ টাকা। উনি যে ব্যাঙের ছাতা বা মাশরুম খান সেটি

Read More »
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

সুপ্রিম কোর্টের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে চরম বিতর্কিত হিন্দু ধর্মের বিজ্ঞাপন

এবার ঘোমটার আড়ালে ভাজপার খ্যামটা নাচ,নিউজ মিডিয়া ছেড়ে সোশাল মিডিয়ায় বিপুল টাকা ঢেলে ৩৬৫ দিন। মোদী হ্যায় তো মুমকিন হ্যায়! তার জেরে জাতীয় নির্বাচন কমিশন

Read More »
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

এই কদর্য রিমেক ভাজপাকেই মানায়

গৌতম ঘোষের ধিক্কার গৌতম ঘোষ। ৩৬৫ দিন। সত্যজিৎ রায়ের হীরক রাজার দেশে ছবিকে ,তার সংলাপকে, সেটকে এবং চরিত্রদের বিকৃত করে যে রাজনৈতিক বিজ্ঞাপন বিজেপি নির্মাণ

Read More »
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

প্রধানমন্ত্রীর পদ ব্যবহার করে বিজেপির প্রচার করছেন মো

মমতার গর্জন, বিজ্ঞাপনেও লিখছে প্রধানমন্ত্রীর রোড শো ৩৬৫ দিন। আগামীকাল মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদির রোড শো উত্তর কলকাতায়। নির্বাচন চলাকালীন প্রধানমন্ত্রীর ব্যাচ লাগিয়ে এই রোড

Read More »
Facebook
Twitter
LinkedIn
WhatsApp
Email
Print

বিজেপিকে ভোট না দিলে গুলি চালানোর কথা বলছে বিএসএফ

কীর্তি, শর্মিলার সমর্থনে গলসিতে জনসভা
মমতার বিস্ফোরক অভিযোগ

 

গলসি ‘বিএসএফ, সিআরপিএফকে বিজেপি বানিয়ে দিয়েছে। আর বিজেপিকে ভোেট না দিলে গুলি করার কথা বলা হচ্ছে বিএসএফকে। উত্তরবঙ্গের বালুরঘাট আর মেখলিগঞ্জের মানুষ সেই অভিযোগ করেছেন’ ভারতীয় জনতা পার্টির গোলসির সভা থেকে বিস্ফোরক অভিযোগ তুললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা। বুধবার দুপুরে বর্ধমান দুর্গাপুর লোকসভার তৃণমূলের প্রার্থী কীর্তি আজাদের সমর্থনে মুখ ্যমন্ত্রীর জনসভায় যোগ দেন বর্ধমান দুর্গাপুরের তৃণমূল প্রার্থী কীর্তি আজাদ, বর্ধমান পূর্বের তৃণমূল প্রার্থী শর্মিলা সরকার সহ রাজ্যের তিন মন্ত্রী ও জেলা সভাপতিরা। জনসভা মঞ্চ থেকে মমতা বলেন ‘কীর্তি আজাদ আমার ঘরে আসতো। আমার সাথে ভাই বোনের সম্পর্ক। গোলসির মানুষ বেশ কিছু তৃণমূলের নেতার উপর বিরক্ত কিন্তু তৃণমূলের ওপর বা তাঁর ওপর বিরক্ত নন তৃণমূলের প্রার্থীর ওপর বিরক্ত নন। এখান থেকে তৃণমূলের প্রার্থী জিতবে।’ এদিন নাম না করে ভাজপা প্রার্থী দিলীপ ঘোষ প্রসঙ্গে মমতা বলেন, ‘আর এখানে যে দাঁড়িয়েছে বিজেপির তাঁর দল তাঁকে মেদিনীপুরে টিকিট দেয় নি। প্রতিদিন রাস্তায় দাঁড়িয়ে বলছে, তৃণমূলকে ডান্ডা মারো তৃণমূলকে লাঠি মারো। এটা কোন মুখের ভাষা হতে পারে। একটা রাজনৈতিক দল যখন এসব কথা বলে তখন বুঝবেন সেই দল দেউলিয়া হয়ে গিয়েছে। পেপারে দেখলাম, ‘কহি মাইকা লাল হ্যায় যোক্যা রোকেগা’, আমি রাজনাথ বাবুকে প্রণাম জানিয়ে বলবো আমরা রুখ বো। ক্যা, এনআরসি হতে দেব না আমরা। সকাল বিকেল মোদিকে প্রণাম করে নিজেদের চেয়ার বাঁচান। আপনিও তো আজ দেশের প্রধানমন্ত্রী হতে পারতেন কেউ মানা করেনি। নীতিন গরকরিও হতে পারত কোন আপত্তি ছিল না। যে ভদ্রলোক ভদ্রতা করবে। যারা দাঙ্গা মেরে দাঙ্গা করে মানুষ মেরে হাতগুলো খুনে লাল হয়ে গিয়েছে। 

লাল থেকে তৈরি হয়েছে গেরুয়া। সাধু সন্তরাও গেরুয়া পরেনা। যারা পড়ছে তাঁরা নিজেরা কষ্ট পাচ্ছে। কারণ সমস্ত কিছুই এখন গেরুয়া করে দিয়েছে ওঁরা। পারলে আকাশটাকেও আর ধানগুলোকেও গেরুয়া করে দিত।’ তারপরেই নির্বাচন কমিশনকে আক্রমণ করে মমতা বলেন, ‘বেশি গরম প্রচন্ড লু লেগেছে হেলিকপ্টার আগুনের মতন হয়ে থাকোযেন হিট চেম্বার। ২৫ দিন ধরে প্রচার করছি। তিন মাস ধরে নির্বাচন। বিজেপির চক্রান্ত। মাধ্যমিক উচ্চমাধ্যমিক রেজাল্ট বেরোবে। কলেজে ভর্তি হতে হবে। এই গরমে নির্বাচন। কমিশন কিছু বোঝে না। এই গরমে একটা ছাতাতে কিছু হয় না। যারা বড় নেতা তারা ঠান্ডা ঘরে বসে থাকে আর নির্দেশ দেন। আর যারা মাটিতে চড়ে বেড়ান তারা বোঝে খেতটা কত গরম হয়ে আছে। তিন মাস বাদে লক্ষ্মীর ভান্ডার নাকি বন্ধ করে দেবে বলছিল এক বিজেপি নেতা। প্রচন্ড লু মুখে লাগছে, চশমা রাখতে পারছি না আর একমাস ঠেলে দেব কিন্তু বিজেপিকে হাঠাবোই।’ এদিন মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বিজেপির ধর্ম বাইরে থেকে ধার করে নিয়ে এসেছে। কারণ দেখে যখন স্বাধীনতা আন্দোলন হয়েছিল বিজেপি তখন ছিল না। তাই দেশকে স্বৈরতন্ত্র বানাতে চাইছে। বিজেপি কিসের ধর্ম ওদের সঙ্গে না আছে মা দুর্গা না আছে কালী। না আছে লক্ষী না আছে সরস্বতী। না আছে সীতা না আছে সাবিত্রী।’ মুখ্যমন্ত্রীর কথায়, ‘যারা বড় বড় নেতা তারা ঠান্ডা ঘরে বসে নির্দেশ দেয়। যারা মাটিতে চড়ে বেড়ায় তারা জানে মাটিটা কত গরম হয়ে গেছে।’ গরম প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীর প্রতিক্রিয়া, ‘আজকে গরম এত বেশি প্রচন্ড লু লেগেছে আজকে। ২৫ দিন ধরে বাংলায় ঘুরছি। তিন মাস ধরে নির্বাচন দিয়েছে। বিজেপির নির্ঘাত কোন চক্রান্ত আছে, নাহলে জুন মাস পর্যন্ত কেউ নির্বাচন নিয়ে যায়।’ এদিন মুখ্যমন্ত্রী স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে বলেন, ‘আমি বুদবুদের আগে এসেছিলাম। আমি একটি মাঠে মিটিং করে চলে যাবার পর জানতে পারি সেখানে একজন মারা যায়। আমি সঙ্গে সঙ্গে অন্য মিটিং ক্যান্সেল করে বুদবুদে ফিরে আসি।’

 
Scroll to Top