হাইলাইট
।।মান্নাতের ছাদে আব্রামকে নিয়ে ঈদের শুভেছা শাহরুখের।।আরিয়ান বলছেন,ভিডিওতে ওটা আমার হাত নয়, লারিসা জাস্ট আমার ফ্রেন্ড।।উত্তরবঙ্গে প্রচারে দেব দর্শন।।নবাব আলী পার্কে ইফতার মুখ্যমন্ত্রীর।।হুগলির দলীয় বৈঠকের পর অভিষেকের হুংকার, এনআইএ ভাজপা আঁতাতের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে যাচ্ছি।।রাজ্যপালের কাছে অভিষেক ও ১০ নেতা, অভিষেকের অভিযোগ, দেশের ডিক্টেটরশিপ চলছে, কমিশনের পিছনে কলকাঠি নাড়ছে বিজেপি।।কেন কীভাবে সাজানো হল এনআইএ’র ভূপতিহামলা? চক্রান্তের নেপথ্য কাহিনি…।।৪ কেন্দ্রীয় এজেন্সির শীর্ষ কর্তাকে অবিলম্বে সরানোর দাবিতে ধরনা, দিল্লি পুলিশের তৃণমূলের ওপর ঘৃণ্য আক্রমণ।।মোদির উদ্দেশ্যে মমতার গর্জন- জুনে চুন চুনকে জেলে ভরব এটা কোনো প্রধানমন্ত্রীর ভাষা!আপনি তো গোটা দেশটাকেই জেল বানিয়ে ফেলেছেন।।দেবকে পাশে নিয়ে ঘাটালের র‍্যালিতে অভিষেক, রাঙিয়ে দিলেন গোলাপের পাপড়ি।।ভূপতিনগরে কেন্দ্রীয় এজেন্সির হামলার বিরুদ্ধে তৃণমূলের ডাক, শাখ বাজিয়ে, উলু দিয়ে সতর্ক করুন, গণপ্রতিরোধ গড়ে তুলুন।।এনআইএ’কে অভিষেকের চ্যালেঞ্জ দেশে নির্বাচনী বিধি চলছে জেনেও বলুন কেন আপনার পুলিশ সুপারের ফ্ল্যাটে জিতেন্দ্র তিওয়ারি গেছিলেন?।।জম্মু কাশ্মীরে ভাজপার বিরুদ্ধে জোর লড়াই, ৩ সিটে প্রার্থী পিডিপির অনন্তনাগে মেহেবুবা মুফতি।।পুরুলিয়ার জনসভা থেকে মমতার হুঁশিয়ারি,বিজেপির প্ল্যান, বুথ প্রেসিডেন্ট এজেন্টদের গ্রেফতার করতে পারেবিকল্প নাম রেডি রাখুন।।ভাজপা-এনআইএ আঁতাতের ক্রোনোলজি ফাঁস তৃণমূলের, ভূপতিনগরে এনআইএ হামলা, প্রমাণ হাতে বিস্ফোরক কুণাল

মান্নাতের ছাদে আব্রামকে নিয়ে ঈদের শুভেছা শাহরুখের

৩৬৫ দিন। বলিউড বাদশা শাহরুখ খান বৃহস্পতিবার ইদ উপলক্ষে মুম্বইয়ের বাড়ি মন্নতের বাইরে জড়ো হওয়া তার ভক্তদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।ভক্তদের শুভেচ্ছা মেনে ইদের দিন মন্নতের বারান্দায়

Read More »

আরিয়ান বলছেন,ভিডিওতে ওটা আমার হাত নয়, লারিসা জাস্ট আমার ফ্রেন্ড

তপন বকসি • মুম্বাই বলিউডে এই মুহূর্তে জোর গুঞ্জন ৩৪ বছর বয়সী ব্রাজিলিয়ান মডেল এবং অভিনেত্রী লারিসা বনেসির প্রেমে হাবুডুবু খাচ্ছেন তার থেকে আট বছরের

Read More »

উত্তরবঙ্গে প্রচারে দেব দর্শন

শিলিগুড়ি। পরিচিত হাসিমুখ নিয়ে নির্বাচনী প্রচারে গণদেবতার সামনে হাজির হয়ে মনজয় টলি সুপারস্টার দেবের। দেবকে ঘিরে জনজোয়ারে ভাসলো শহর শিলিগুড়ি।অভিনেতা তৃনমূল সাংসদ দেবকে ঘিরে বাঁধ

Read More »

নবাব আলী পার্কে ইফতার মুখ্যমন্ত্রীর

৩৬৫ দিন। তিনি বরাবরই বলে এসেছেন, ধর্ম যার যার, উৎসব সবার।তাঁর বক্তব্যে সবসময় উঠে এসেছে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির কথা। বাংলা যে ধর্ম নিরপেক্ষ সেটা বারবার মমতা

Read More »

হুগলির দলীয় বৈঠকের পর অভিষেকের হুংকার, এনআইএ ভাজপা আঁতাতের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে যাচ্ছি

৩৬৫দিন। শুধু এনআইএ’র এসপিকে ডেকে পাঠিয়ে লোক দেখানো শোকজ জারি করব কিংবা তাকে একবার ধমকালে চলবে না। এন আই এর ডিরেক্টরকে বদল করতে হবে। মঙ্গলবার

Read More »

রাজ্যপালের কাছে অভিষেক ও ১০ নেতা, অভিষেকের অভিযোগ, দেশের ডিক্টেটরশিপ চলছে, কমিশনের পিছনে কলকাঠি নাড়ছে বিজেপি

৩৬৫ দিন। দিল্লিতে রাজ্যের সাংসদদের ওপর পুলিশি অত্যাচারের ও অতি সক্রিয়তার প্রতিবাদে এদিন গা সদস্যের প্রতিনিধি দল নিয়ে সোমবার রাতেই রাজভবনে রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করলেন

Read More »
Facebook
Twitter
LinkedIn
WhatsApp
Email
Print

ভোররাতে জলপাইগুড়ি সদর হাসপাতাল থেকে চালসা গেস্ট হাউজে যাওয়ার পথে, গাড়ি ঘুড়িয়ে ,রাত ৩ টে থেকে বার্নিশ গ্রামে দুর্গতদের পাশে মুখ্যমন্ত্রী

৩৬৫ দিন। যতবার দুর্ঘটনায় বিপর্যস্ত হয়েছে সাধারণ মানুষ, ততবার দুর্গতদের পাশে সহায় হয়ে দাঁড়িয়েছেন তিনি। সোমবারের ঝড়ে লন্ডভন্ড হয়ে যাওয়া জলপাইগুড়ি, আলিপুরদুয়ার, ময়নাগুড়ি এবং কোচবিহারের একাংশের মানুষ যেভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে, সোমবার কৃষ্ণনগরে ভোটের প্রচার শেষ করে গভীর রাতে কলকাতা থেকে জলপাইগুড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দিয়ে রাতেই জলপাইগুড়ির ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে গিয়ে দাঁড়ান বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা। প্রথমে জলপাইগুড়ির ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের পাশে গিয়ে দাঁড়ানো, বিপর্যস্ত এলাকা পরিদর্শন করা, জলপাইগুড়ি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে আহতদের পাশে গিয়ে তাদের আশ্বাস দেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী। এরপর রাত ১ নাগাদ ময়নাগুড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দেয় মুখ্যমন্ত্রী। ময়নাগুড়ির বার্নিশ গ্রাম সবথেকে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ঝড়ের ফলে। সেই বার্নিশ গ্রামে গিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে গিয়ে দাঁড়ান মমতা। ভোররাত চারটের সময় বার্নিশ গ্রাম থেকে বেরিয়ে যান মুখ্যমন্ত্রী।
জলপাইগুড়ি জেলার এলাকা পরিদর্শন
সোমবার বেলা সাড়ে ১১ টার সময়ে আলিপুরদুয়ারের ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনে যান মুখ্যমন্ত্রী। তারপর আলিপুরদুয়ারের একাধিক রিলিফ ক্যাম্পে গিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে দাঁড়ান বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা। অন্যদিকে তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক সোমবার জলপাইগুড়িতে নিউরোসাইন্স হাসপাতালে পৌঁছে রোহিত রায় এবং পিউ রায়-দুই শিশুর চিকিৎসা সম্পর্কে খোঁজ নেন। জলপাইগুড়ি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ভর্তি অন্যান্য আহত ব্যক্তিদের সম্পর্কেও ডাক্তারদের সঙ্গে কথা বলেন। আহত ব্যক্তিদের সঙ্গে দেখা করে অভিষেক তাদের সব রকম ভাবে আশ্বস্ত করেন। ‘আবাসের টাকা কেন্দ্র দিলে এরকম ঘটত না’, সরাসরি ভাজপাকে এই প্রসঙ্গে আক্রমণ করেছেন অভিষেক। সোমবার ভোর চারটে পর্যন্ত ময়নাগুড়ির বার্নিশ গ্রামে তদারকিতে মুখ্যমন্ত্রী জলপাইগুড়ি জেলার ময়নাগুড়ি সহ বিভিন্ন এলাকায় ব্যাপক ঝড়ের ফলে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী সোমবার রাতেই। রবিবার রাতেই বিশেষ বিমানে এসে রাত ১১ টা নাগাদ বাগডোগড়া বিমান বন্দরে নামেন তিনি। সেখান থেকে সড়ক পথে সোজা জলপাইগুড়ি রওনা হন। মুখমন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন রাজ্যের বিদ্যুৎ মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস। জলপাইগুড়ির গোসালা এলাকায় এক মৃতের পরিবারের সাথে দেখা করেন এবং জলপাইগুড়ি ৩ নম্বর ওয়ার্ডে আরো এক ব্যক্তির মৃত্যুর খবর পেয়ে মুখ্যমন্ত্রী সেই পরিবারের সঙ্গেও দেখা করেন। সেখান থেকে জলপাইগুড়ি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে গিয়ে ঝড়ে আহত হয়ে ভর্তি রোগীদের সাথে দেখা করেন। মুখ্যমন্ত্রী আহত রোগীদের আস্বস্ত করে বলেন, প্রশাসন তাদের পাশে আছে। সেখানে থেকে রাত ১ টা নাগাদ মুখ্যমন্ত্রীর চালসার বেসরকারি হোটেলে ফিরে যাওয়ার কথা থাকলেও মন মানেনি রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধানের। তাই জলপাইগুড়ি থেকে চালসার অভিমুখে মুখ্যমন্ত্রীর কনভয় রওনা দিলেও মাঝপথে গাড়ি ঘুরিয়ে পৌঁছে গিয়েছিলেন ময়নাগুড়ির বার্নিশ গ্রামে।
ময়নাগুড়ির বার্নিশ গ্রামে মুখ্যমন্ত্রী
ঝড়ে বীভৎস ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এই ময়নাগুড়ির বার্নিস গ্রাম। প্রচুর মানুষ ভিটে হারা হয়েছে। ভেঙে পরেছে তাদের বাড়িঘর। দিশেহারা মানুষগুলির পাশে থাকতেই মুখ্যমন্ত্রী বার্নিস গ্রামের অসহায় মানুষগুলির পাশে দাঁড়ান। গোটা গ্রাম ঘুরে দেখেন। ভোররাতেই কথা বলেন স্বজন হারা ও ক্ষতিগ্রস্থদের সঙ্গে। জেলা প্রশাসনকে নির্দেশ দিয়ে বলেন, ‘যা গেছে তা ফেরানো যাবেনা। প্রশাসন পাশে আছে। সব ব্যবস্থা করবে।’ পাশাপাশি প্রশাসনের উদ্যোগে পাশেই ত্রাণ শিবির তৈরি হয়েছে। তিনি সেখানেও যান। আর ত্রাণ শিবিরে যারা আশ্রয় নিয়েছে তাদের উদ্দেশ্যে মুখ্যমন্ত্রী বলেন ‘আপনারা এখন এখানেই থাকবেন যতদিন পর্যন্ত থাকার ব্যবস্থা না হচ্ছে। আপনাদের খাবারের ব্যবস্থা করা হয়েছে। প্রশাসন সবরকম ভাবে আপনাদের পাশে রয়েছে।’ সবদিক তদারকি করে ভোর চারটের সময়ে মুখ্যমন্ত্রী চালসার সেই বেসরকারি হোটেলে ফেরেন।
সকালে আলিপুরদুয়ারে মুখ্যমন্ত্রী
সোমবার সকালে আলিপুরদুয়ারের ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনে বের হন মুখ্যমন্ত্রী। আলিপুরদুয়ারের একাংশ জুড়ে ঝড়ে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। সেই দুর্গত বিধ্বস্ত এলাকা পরিদর্শনে এদিন সকাল বেলাতেই পৌঁছে যান মুখ্যমন্ত্রী। আলিপুরদুয়ারের রিলিফ ক্যাম্পে পৌঁছান মুখ্যমন্ত্রী। রিলিফ ক্যাম্পে পৌঁছে সাধারণ মানুষের সঙ্গে কথা বলেন মুখ্যমন্ত্রী। দূর্গতদের আশ্বস্ত করে তিনি বলেন,’আপনাদের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে জানি। কিন্তু চিন্তা করবেন না, সরকার আপনাদের পাশে আছে। এমসিসি বোলে আমি বলছি না। কিন্তু সব রকম সহযোগিতা করা হবে।’ এরপরেই স্থানীয় প্রশাসনকে মুখ্যমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছেন রিলিফ ক্যাম্পে এই মুহূর্তে যত বেশি সংখ্যক মানুষ থাকতে পারেন তার ব্যবস্থা করার, তাদের খাবার-দাবারের ব্যবস্থা করার, বাচ্চাদের দুধের ব্যবস্থা করার, পানীয় জলের ব্যবস্থা করার।

Scroll to Top