হাইলাইট
।।উফ কী গরম
Part-164
।।বিধানসভার উপনির্বাচনের মনোনয়নপত্র জমা দিলেন তৃণমূল প্রার্থী মুকুটমনি অধিকারী।।উফ কী গরম
Part-163
।।ফ্লাইট থেকে নেমেই আর শুনতে পাচ্ছেন না অলকা ইয়াগনিক,বিরল রোগের শিকার গায়িকা।।মুখ্যমন্ত্রী নির্দেশে মেয়র ও পরিবহণ মন্ত্রীর তত্ত্বাবধানে, কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেসের দুর্ঘটনায় কবলে পড়া যাত্রীদের রাত জেগে বাড়ি ফেরাল রাজ্য সরকার।।ভয়াবহ আগুনে পুড়ে ছাই হলং বনবাংলো।।তাপমাত্রা ৫১ ডিগ্রি ছাড়িয়েছে, হজে গিয়ে হিটস্ট্রোকে মৃত 500।।জলস্তর বৃদ্ধি তোর্সা নদীতে। এলাকা পরিদর্শনে পৌর প্রধান রবীন্দ্রনাথ ঘোষ। কোচবিহার।।।।উফ কী গরম
Part 162
।।শিয়ালদহগামী কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেস দুর্ঘটনা, মালগাড়ির সঙ্গে ধাক্কায় উল্টে গেলে 2 কামরা।।উপনির্বাচনের তিন প্রার্থীকে নিয়ে দলীয় বৈঠক।।অভিষেকের সিম ক্লোন করে ফোন।।ডায়মন্ড হারবারে বিপুল জয়, শুভেচ্ছা বিনিময়ে অভিষেক।।তিন কোটি টাকার বেআইনি সোনা সহ গ্রেফতার দুই।।তৃণমূল শিবিরে লাগাতার যোগদান কাল ঘাম ছোটাচ্ছে বিজেপির
৩৬৫ দিন Exclusive
khabar365din

উফ কী গরম
Part-164

উফ কী গরম ! HOT BIKINI ডেমি রোজ ৩৬৫ দিন। সান্তরিনি আইল্যান্ড তখন আরও ঝকঝকে।ঝলমলে রোদের সঙ্গে দ্বীপ যেনও আরও সাদা হয়েগেছে।এর মাঝেই পিঙ্ক বিকিনি

Read More »
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

বিধানসভার উপনির্বাচনের মনোনয়নপত্র জমা দিলেন তৃণমূল প্রার্থী মুকুটমনি অধিকারী

খবর ৩৬৫ নদিয়া:রানাঘাট দক্ষিণ বিধানসভা উপ নির্বাচনে বৃহস্পতিবার রানাঘাট মহকুমা শাসকের দপ্তরে গিয়ে মনোনয়ন পত্র জমা দিলেন তৃণমূল প্রার্থী ডাঃ মুকুটমনি অধিকারী। বৃহস্পতিবার সকালে রানাঘাট

Read More »
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

উফ কী গরম
Part-163

উফ কী গরম HOT BIKINI ইরিনা আলেখিনা   ৩৬৫ দিন। কম বয়সেই উচ্চতার শিখরে।এক একটা সিঁড়ি পার করে এখন তিনি অত্যন্ত জনপ্রিয় মুখ।তিনি ইরিনা আলেখিনা।রাশিয়ার

Read More »
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

ফ্লাইট থেকে নেমেই আর শুনতে পাচ্ছেন না অলকা ইয়াগনিক,বিরল রোগের শিকার গায়িকা

ক্রমশ শ্রবণশক্তি হারাচ্ছেন গায়িকা ৩৬৫ দিন।৯০ দশকে হার্টথ্রব অলকা ইয়াগনিক বিরল রোগের শিকার।বড় ঘটনা ঘটেছে তাঁর জীবনে।শ্রবণশক্তি হারিয়েছেন এই গায়িকা।বিরল স্নায়ুরোগে আক্রান্ত হয়েছেন তিনি।নিজেই ইনস্টাগ্রামে

Read More »
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

মুখ্যমন্ত্রী নির্দেশে মেয়র ও পরিবহণ মন্ত্রীর তত্ত্বাবধানে, কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেসের দুর্ঘটনায় কবলে পড়া যাত্রীদের রাত জেগে বাড়ি ফেরাল রাজ্য সরকার

৩৬৫ দিন। রেল কর্তৃপক্ষের চূড়ান্ত গাফিলতির জেরে দুর্ঘটনার কবলে পড়েছে কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেস। নিজেদের ওপর থেকে দোষ ঝেড়ে ফেলতে, তড়িঘড়ি মৃত চালকের ঘাড়ে দোষ চাপিয়েছে রেল

Read More »
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

ভয়াবহ আগুনে পুড়ে ছাই হলং বনবাংলো

৩৬৫ দিন। বিধ্বংসী আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গেল জলদাপাড়ার ঐতিহ্যবাহী সরকারি বনবাংলো হলং। রাত ৯টা নাগাদ হলং বাংলোতে কর্মীরা আগুন দেখতে পান। বর্ষায় জঙ্গল পর্যটকদের

Read More »
Facebook
Twitter
LinkedIn
WhatsApp
Email
Print

পিএমএলএ আইনে ইডির যাকে খুশি গ্রেফতার নয়, কোর্টে তথ্যপ্রমাণ পেশ করে অনুমতি নিতে হবে

ইডির যথেচ্ছাচারে রাশ, সুপ্রিম কোর্টের ঐতিহাসিক রায়

৩৬৫ দিন। নয়াদিল্লি। পিএমএলএ আইনে অভিযুক্ত দেখি য়ে যেকোনো রাজনৈতিক নেতাকে অথবা রাজনৈতিক নেতাদের গণিত ব্যবসায়ীদের নিজের ইচ্ছে মতো গ্রেফতার করতে পারবে না কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। যদি পিএমএলএ আইনে কোন ব্যক্তি সত্যিই অভিযুক্ত থাকেন এবং তার বিরুদ্ধে যথোপযুক্ত তথ্য-প্রমাণ কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার গোয়েন্দাদের হাতে থাকে সেই সমস্ত তথ্য বিশেষ পি এম এল এ আদালতের বিচারকের কাছে বেশ করে আদালতের অনুমতি সাপেক্ষেই নিতে হবে গ্রেফতারের মতো পদক্ষেপ। আজ এমন ঐতিহাসিক রায় দিল সুপ্রিম কোর্ট।

২০১৪ সালে নরেন্দ্র মোদী প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর থেকে গোটা দেশে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটকে কাজে লাগিয়ে দেশের একের পর এক ভাজপা বিরোধী রাজনৈতিক দলের নেতাদের রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে গ্রেফতারের অভিযোগ উঠেছে। অধিকাংশ ক্ষেত্রেই যে সমস্ত বিরোধী রাজনৈতিক নেতাকে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট পিএমএলএ আইনে গত ১০ বছরে গ্রেফতার করেছে তাদের প্রায় ৯৯ এর বিরুদ্ধে এখনও পর্যন্ত অভিযোগ প্রমাণ করতে পারেনি কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। তার প্রেক্ষিতেই সুপ্রিম কোর্টে পি এম এল এ আইনের অপব্যবহারের অভিযোগ উঠেছিল এনফোর্সমেন্ট ন ডিরেক্টরেট এর বিরুদ্ধে। আজ সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি অভয় এস ওকা এবং বিচারপতি উজ্জ্বল ভূঁইয়ার ডিভিশন বেঞ্চ স্পষ্ট ভাষায় এই রায় দেন।

সুপ্রিম কোর্ট আজ ঐতিহাসিক রায় দিতে গিয়ে জানিয়েছে পি এম এল এ আইনের ৪ নম্বর ধারা প্রয়োগ করে যেভাবে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ব্যক্তিকে পি এম এল এ আইনে অভিযুক্ত হিসেবে দেখিয়ে কোনরকম তথ্য-প্রমাণ ছাড়াই সাম্প্রতিককালে গ্রেফতারের অভিযোগ উঠেছে সেক্ষেত্রে বেলাগাম গ্রেফতারের ঘটনায় লাগাম টানতে বাধ্য হচ্ছে সুপ্রিম কোর্ট। যদি কোন ব্যক্তির বিরুদ্ধে পিএমএলএ আইনের চার নম্বর ধারা প্রয়োগ করার প্রয়োজনীয়তা দেখা দেয় তাহলে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার গোয়েন্দাদের প্রাথমিক তথ্য প্রমাণ এবং তার বিরুদ্ধে কোন কোন ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে সেই বিষয়গুলি জানাতে হবে বিশেষ পি এম এল এ আদালতের বিচারকদের সামনে। বিশেষ আদালতের বিচারক যদি সন্তুষ্ট হন যে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে সত্যিই পিএমএলএ আইনের চার নম্বর ধারা অনুযায়ী আর্থিক তছরুপে দোষী সাব্যস্ত করা উচিত তাহলে সেই বিশেষ আদালত গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করবে। আদালতের গ্রেফতারি পরোয়ানা ছাড়া পেয়ে মিলে আইনের চার নম্বর ধারায় আর্থিক তৎ রূপে অভিযুক্ত বলে কোন ব্যক্তিকে আর নিজের ইচ্ছে মতো গ্রেফতার করতে পারবে না কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। এই রায় অনুযায়ী, মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইনের ১৯ ধারার অধীনে অর্থ পাচারের অভিযোগে অভিযুক্তদের গ্রেফতার করার ক্ষেত্রে ইডি'র পূর্ববর্তী নীতি বাতিল করা হয়েছে। ইডি যদি অভিযুক্তকে হেফাজতে নিতে চায়, তাহলে তাদের বিশেষ আদালতে আবেদন করতে হবে। আদালত শুনানি করার পর হেফাজতের অনুমতি দিতে পারে, যদি তারা মনে করে যে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হেফাজত প্রয়োজন। অভিযোগ দায়ের না হওয়া পর্যন্ত, ইডি যদি অভিযুক্তকে গ্রেফতার না করে, তবে বিশেষ আদালত সাধারণত সমন জারি করবে, ওয়ারেন্ট নয়। যদি অভিযুক্ত সমন অনুসারে হাজির হয়, তাহলে তাকে স্বয়ংক্রিয়ভাবে হেফাজতে নেওয়া হবে না এবং জামিনের জন্য আবেদন করতে পারবেন।

তবে এর পাশাপাশি সুপ্রিম কোর্ট আজ জানিয়ে দিয়েছে, যদি কোন ব্যক্তি অন্য মামলায় গ্রেপ্তার হওয়ার পরে জামিনে মুক্ত থাকেন তাকে নতুন করে পিএমএলএ আইনে অভিযুক্ত করার জন্যও আদালতের অনুমতি নিতে হবে।

Scroll to Top