হাইলাইট
।।উফ কী গরম ! Part-189।।রাজ্য পুলিশের ডিজি পদে ফিরলেন রাজীব কুমার।।টালা ঝিলপার্ক, রাসেল স্ট্রিট, পাটুলিতে হচ্ছে স্ট্রিট ফুড হাব।।মানবিক মুখ্যমন্ত্রী : প্রাক্তন কারামন্ত্রীর চিকিৎসার দায়িত্ব গ্রহণ।।নামী রেস্তোরাঁর বিরিয়ানিতে বিষ রং পুরসভার জরিমানা ৩ লক্ষ টাকা।।উফ কী গরম ! Part-188।।শপথের জন্য রাজ্যপালকে আর্জি,রাজ্যপাল টালবাহানা করলে শপথ পাঠ করাবেন অধ্যক্ষ।।মিথ্যা ন্যারেটিভ ছড়িয়ে বাংলায় দাঙ্গার চক্রান্ত, অসমের গরু পাচারের ভিডিও হুগলির ঘটনা বলে প্রচার।।আকাশ দখল ঠেকাতে কেএমসি’র নয়া নীতি, তৈরি হবে নো হোর্ডিং জোন।।ত্রাতা মার্তিনেজ, কলম্বিয়াকে হারিয়ে কোপা আমেরিকা চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা।।গাছেদের সুরক্ষায় কলকাতায় চালু হবে ট্রি অ্যাম্বুলেন্স।।শতবর্ষে বাদল সরকার,শহরে চলছে বাদল থিয়েটার মেলা।।আততায়ী কে? ২০ বছরের মেধাবী ছাত্র টমাস ম্যাথিউ ক্রুকস।।উফ কী গরম ! Part-187।।মার্কিন বন্দুকবাজের হাতে খুন ৪ প্রেসিডেন্ট, ৮ অল্পের জন্য রক্ষা
বিবি
Avinash

উফ কী গরম ! Part-189

উফ কী গরম ! HOT BIKINI নিকোল মিনেতি ৩৬৫ দিন। কম বয়সেই উচ্চতার শিখরে উঠেছিলেন।এক একটা সিঁড়ি পার করে এখন তিনি অত্যন্ত জনপ্রিয় মুখ।টেলিভিশন থেকে

Read More »
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

রাজ্য পুলিশের ডিজি পদে ফিরলেন রাজীব কুমার

৩৬৫ দিন। ফিরে এলেন রাজীব কুমার। ফিরলেন রাজ্য পুলিশের ডিরেক্টর জেনারেল পদে। লোকসভা নির্বাচনের পরে রাজ্য পুলিশের ডিরেক্টর জেনারেল রাজীব কুমারকে সরিয়ে দিয়েছিল জাতীয় নির্বাচন

Read More »
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

টালা ঝিলপার্ক, রাসেল স্ট্রিট, পাটুলিতে হচ্ছে স্ট্রিট ফুড হাব

৩৬৫ দিন। কলকাতা শহরের স্ট্রিট ফুডের সংস্কৃতি দীর্ঘদিনের। ডেকারস লেন থেকে শুরু করে টেরিটি বাজারের স্ট্রিট ফুড বিশ্বের যে কোন দেশের স্ট্রিট ফুডের সঙ্গে পাল্লা

Read More »
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

মানবিক মুখ্যমন্ত্রী : প্রাক্তন কারামন্ত্রীর চিকিৎসার দায়িত্ব গ্রহণ

৩৬৫দিন। মানবিক মুখ্যমন্ত্রী। রাজ্যের প্রাক্তন কারামন্ত্রী তথা আরএসপির নেতা বিশ্বনাথ চৌধুরীর চিকিৎসার জন্য উদ্যোগী হলেন মুখ্যমন্ত্রী। ৭ বারের আরএসপি বিধায়ক দীর্ঘ দিন ধরে ক্যানসারে ভুগছেন।

Read More »
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

নামী রেস্তোরাঁর বিরিয়ানিতে বিষ রং পুরসভার জরিমানা ৩ লক্ষ টাকা

৩৬৫ দিন।কলকাতা পুরসভার অভিযানে সামনে এল চাঞ্চল্যকর তথ্য।পার্ক সার্কাসের নামি বিরিয়ানির দোকানে মেশানো হচ্ছে রং।সেই রং যে বিষাক্ত তা ধরা পড়ল পরীক্ষা করে।রেস্তরাঁটির বিরিয়ানির নমুনা

Read More »
বিবি
Avinash

উফ কী গরম ! Part-188

উফ কী গরম ! HOT BIKINI মিডিয়াম জিওভেনালি ৩৬৫ দিন। জনপ্রিয় মডেল তো বটেই।তবে বডি বিল্ডার হিসেবেই বেশি বিখ্যাত তিনি।কিভাবে নিজের শরীর-স্বাস্থ্য সুস্থ রাখেন তিনি

Read More »
Facebook
Twitter
LinkedIn
WhatsApp
Email
Print

এসএফআই নেতা অনুষ্টুপকে বেআইনিভাবে নম্বর বাড়িয়ে পিএইচডিতে নথিভুক্ত

যাদবপুরে জুটার পিএইচডি কেলেঙ্কারি ফাঁস

৩৬৫ দিন। যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে সিপিএম -এর অধ্যাপক সংগঠন জুটার পিএইচডি দুর্নীতি ফাঁস। বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়ম ভেঙে ব্যাকডোর দিয়ে এসএফআইয়ের নেতা অনুষ্টুপ চক্রবর্তীকে পিএইচডিতে সুযোগ করে দেওয়ার অভিযোগ ওঠে জুটার সাধারণ সম্পাদক পার্থ প্রতিম রায়ের বিরুদ্ধে। এবার সেই পিএইচডি দুর্নীতির তদন্ত করতে কমিটি গঠন করল যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। শুক্রবারের বিশ্ববিদ্যালয়ে এক্সিকিউটিভ কাউন্সিলের বৈঠকে অন্তর্বর্তীকালীন উপাচার্য ভাস্কর গুপ্তর নির্দেশে দুই সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। এই কমিটিতে দুজন প্রাক্তন বিচারপতি অথবা কোন পরিচিত শিক্ষাবিদকে দিয়েই তদন্ত করানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

ঠিক কি অভিযোগ জুটার বিরুদ্ধে? গত বছর জুন মাসে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের আর্টস ফ্যাকাল্টির আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের পিএইচডি নোটিফিকেশন বেরিয়েছিল। সেই নোটিফিকেশনের পর ফাইনাল মেরিট লিস্ট প্রকাশ করতে কয়েক মাস লেগে যায়। পড়ুয়াদের অভিযোগ, বিশ্ববিদ্যালয়ের এসএফআইয়ের নেতা অনুস্টুপ চক্রবর্তীকে পিএইচডির জন্য সুযোগ করে দিতে ময়দানে নামে সিপিএমের অধ্যাপক সংগঠন জুটার সাধারণ সম্পাদক পার্থ প্রতিম রায়। অনুস্টুপকে পিএইচডিতে ভর্তি করানোর জন্য বারবার মেরিট লিস্টের নম্বরে কাটাকুটি করা হয়। কিন্ত তৎকালীন ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য বুদ্ধদেব সাহু বাধা দেওয়ায় সমস্ত পরিকল্পনা ব্যর্থ হয়। এমনকি মাকু সিন্ডিকেটের সদস্য অনুষ্টুপ চক্রবর্তীকে পিএইচডিতে শুধুমাত্র সুযোগ করানোর জন্য ৩ টে ডক্টরাল কমিটির বৈঠক করতে বাধ্য করেন জুটার সাধারণ সম্পাদক।

এই অনুস্টুপ কে মেরিট লিস্টে আনার পেছনেও ছিলেন পার্থ রায় । নম্বর ট্যাম্পার করে শেষ অবদি তাকে তালিকার ১০ নম্বরে নিয়ে আসা হয়। আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের পিএইচডি ভর্তির তালিকায় ১৭ টি আসনের মধ্যে জেনারেলে সিট ছিলো ৮ টি । যদিও অনুষ্টুপের এতটাই কম নম্বর ছিল যে শেষ পর্যন্ত তাকে ৮ জনের তালিকার মধ্যে আনা যায়নি। যদিও আটজনের তালিকায় অনুষ্টুপকে ঢোকানোর জন্য জুটার তরফে আর্টস ফ্যাকাল্টির ডিনের উপর প্রবল চাপ সৃষ্টি করা হয় ।যতক্ষণ না অনুষ্টুপেরে নাম ৮জনের তালিকায় দোকান হচ্ছে, ততক্ষণ তালিকা প্রকাশ করতেও বারণ করা হয়।যদিও পড়ুয়াদের আন্দোলনে জেরে চলতি বছরের জানুয়ারী মাসে আর্টস ফ্যাকাল্টির ডক্টরাল কমিটি বাধ্য হয় চূড়ান্ত তালিকা বার করতে। কিন্তু দেখা যায়, ওই তালিকায় থাকা ৫ নম্বর প্রার্থী বিদিশা চন্দর নাম বাদ দেওয়া হয়। যাতে অনুস্টুপ চক্রবর্তী ওয়েটিং লিস্ট ১ থেকে বেরিয়ে এসে ভর্তি হতে পারে। এমনকি সেই সময় একটি অডিয়ো ক্লিপ ভাইরাল হয়েছিল। যেখানে পার্থ প্রতিম রায় ,বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের শিক্ষক ইমনকল্যাণ লাহিড়ী এবং বর্তমানে উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের সভাপতি চিরঞ্জীব ভট্টাচার্যের কথোপকথন উঠে এসেছিল। যা নিয়ে প্রবল শোরগোল তৈরি হয়েছিল।যদিও ওই অডিওর সত্যতা যাচাই করেনি খবর ৩৬৫ দিন।শেষ পর্যন্ত আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের পিএইচডিতে এসএফআইয়ের নেতাকে ভর্তি পড়াতে না পারলেও হাল ছাড়নে জুটা। দ্বিতীয় খেলায় নামে পার্থপ্রতিম রায় এবং যাদবপুরের মাকুসিন্ডিকেটের অধ্যাপকরা।২০২৩ সালে স্কুল অফ ইন্টারন্যাশনাল রিলেশনস অ্যান্ড স্ট্র্যাটিজিক স্টাডিজ এর পিএইচডি নোটিফিকেশন বের হয়। সেখানে আবেদনের শেষ দিন ছিল ৫ সেপ্টেম্বর। কিন্তু ৫ সেপ্টেম্বর এর মধ্যে মাকু সিন্ডিকেটের সদস্য অনুস্টুপ ফর্ম ফিলাপ না করেও পার্থ রায় এবং আরো কিছু জুটার অধ্যাপক মিলে সম্পূর্ণ বেআইনিভাবে তাঁকে স্কুলে পিএইচডি এর সুযোগ করে দেয় বলে অভিযোগ। ফর্ম ফিলাপের ৩ মাস পর অনুষ্টুপ চক্রবর্তীর ফর্ম অফলাইনে এন্ট্রি করে দেওয়া হয়। পরীক্ষা হয়ে যাওয়ার পর হঠাৎ জানুয়ারি মাসের ফাইনাল ইন্টারভিউ লিস্টে তার নাম উঠে আসে। ইন্টারভিউ দেয়। সেখানে পিএইচডি সুযোগ করে দেওয়া হয়ে তাকে।

Scroll to Top