হাইলাইট
।।ভোটের জন্য বহুরূপী সাজলেও না জানেন রবীন্দ্রনাথ, না জানেন মহাত্মা গান্ধি।।কলকাতা হাইকোর্টের তৃণমূল বিরোধী অবস্থানকে সমর্থন প্রধানমন্ত্রীর।।চরম অটোক্র্যাট মোদি ৮০000 হাজার টাকার ব্যাঙের ছাতা খান।।সুপ্রিম কোর্টের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে চরম বিতর্কিত হিন্দু ধর্মের বিজ্ঞাপন।।এই কদর্য রিমেক ভাজপাকেই মানায়।।প্রধানমন্ত্রীর পদ ব্যবহার করে বিজেপির প্রচার করছেন মো।।ভাজপা প্রার্থী হিরণের ডক্টরেট ডিগ্রি জাল।।বিজেপির দিকে ভোট সুইং হবে না, মোদিকে চ্যালেঞ্জ, দম থাকলে আমার সঙ্গে মুখোমুখি বিতর্ক সভায় বসুন।।থেকে যাওনা গো।।মমতার তরুণ তুর্কি দেবাংশু নীল ঘোড়ায়।।সর্বত্র ভাজপা হারছে, না হলে বলে জগন্নাথদেবও মোদির ভক্ত।।বিজেপির একটা বুথে মদ খাওয়ার খরচ ৫০০০ টাকা।।৬ মাসের মধ্যে শুরু হবে ঘাটাল মাস্টারপ্ল্যানের কাজ।।পুরুলিয়ায় মোদির মঞ্চে ভারত সেবাশ্রমের সাধু।।১ মের বদলে ১ এপ্রিল থেকে ডিএ দেওয়ার সিদ্ধান্ত
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

ভোটের জন্য বহুরূপী সাজলেও না জানেন রবীন্দ্রনাথ, না জানেন মহাত্মা গান্ধি

ভোটের শেষ লগ্নে মোদিবাবুর মত, গান্ধি সিনেমা তোলা না হলে সারা বিশ্ব গান্ধির নামও জানত না ৩৬৫ দিন। ১০ অগাস্ট ২০০৭ : দক্ষিণ আফ্রিকার মানুষের

Read More »
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

কলকাতা হাইকোর্টের তৃণমূল বিরোধী অবস্থানকে সমর্থন প্রধানমন্ত্রীর

রাজ্যসঙ্গীত গাইতে গিয়ে পদে পদে হোচট খেলেন মোদী ৩৬৫দিন। কলকাতা হাইকোর্টের তৃণমূল বিরোধী রায়কে সমর্থন প্রধানমন্ত্রীর। মঙ্গলবার সপ্তম দফার নির্বাচনের প্রচারে বাংলায় এসে তৃণমূল বিরোধী

Read More »
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

চরম অটোক্র্যাট মোদি ৮০000 হাজার টাকার ব্যাঙের ছাতা খান

মোদির স্বৈরতান্ত্রিকত আচরণের বিরুদ্ধে মমতার গর্জন ৩৬৫ দিন। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি লাঞ্চের খরচ প্রায় চার লক্ষ টাকা। উনি যে ব্যাঙের ছাতা বা মাশরুম খান সেটি

Read More »
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

সুপ্রিম কোর্টের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে চরম বিতর্কিত হিন্দু ধর্মের বিজ্ঞাপন

এবার ঘোমটার আড়ালে ভাজপার খ্যামটা নাচ,নিউজ মিডিয়া ছেড়ে সোশাল মিডিয়ায় বিপুল টাকা ঢেলে ৩৬৫ দিন। মোদী হ্যায় তো মুমকিন হ্যায়! তার জেরে জাতীয় নির্বাচন কমিশন

Read More »
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

এই কদর্য রিমেক ভাজপাকেই মানায়

গৌতম ঘোষের ধিক্কার গৌতম ঘোষ। ৩৬৫ দিন। সত্যজিৎ রায়ের হীরক রাজার দেশে ছবিকে ,তার সংলাপকে, সেটকে এবং চরিত্রদের বিকৃত করে যে রাজনৈতিক বিজ্ঞাপন বিজেপি নির্মাণ

Read More »
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

প্রধানমন্ত্রীর পদ ব্যবহার করে বিজেপির প্রচার করছেন মো

মমতার গর্জন, বিজ্ঞাপনেও লিখছে প্রধানমন্ত্রীর রোড শো ৩৬৫ দিন। আগামীকাল মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদির রোড শো উত্তর কলকাতায়। নির্বাচন চলাকালীন প্রধানমন্ত্রীর ব্যাচ লাগিয়ে এই রোড

Read More »
Facebook
Twitter
LinkedIn
WhatsApp
Email
Print

মোদি নয়, এবার দিদি ‘ইন্ডিয়া’ জোটকে দিল্লিতে ক্ষমতায় নিয়ে আসবে, গতকাল পর্যন্ত আমাদের হিসেব ওরা ১৯৫, ইন্ডিয়া জোট ৩১৫

বনগাঁয় মমতার গর্জন

৩৬৫ দিন। এবার আর মোদির সরকার দিল্লিতে ক্ষমতায় আসছে না। গতকালের হিসেব অনুযায়ী ১৯০ থেকে ১৯৫টি আসন তারা পাবে। ৩১৫ টির বেশি আসন পাবে ইন্ডিয়া জোট। চতুর্থ দফা ভোটের দিন সোমবার বনগাঁর তৃণমূল প্রার্থী বিশ্বজিৎ দাসের সমর্থনে জনসভা থেকে ঘোষণা করে দিলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা। একইসঙ্গে চতুর্থ দফা ভোটের দিন যেভাবে বিজেপি বিভিন্ন জায়গায় সন্ত্রাস চালিয়েছে তার কড়া সমালোচনা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। পাশাপাশি মতুয়াদের নিঃশর্ত নাগরিক অধিকার দেওয়ার দাবিতেও সরব হয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। মুখ্যমন্ত্রী যা বললেন,

১. তিন দফা ভোট হয়েছে মুখটা চুপসে গেছে। তিন দফাতেই কুপোকাত হয়েছে। আর মোদি নয়। দিদি যেটা করবে সেটা হল ইন্ডিয়া জোটকে দিল্লিতে ক্ষমতায় এনে দেবে। কালকে পর্যন্ত যা হিসেব আছে ওরা বড়জোর ১৯০ থেকে ১৯৫ আর ইন্ডিয়া জোট ৩১৫ ক্যালকুলেশন করেছে। তিন-চারটে পার্টি ধরা হয়নি এখনো। আজকের নির্বাচনটাও ধরছি না। ওরা বলেছিল ইজবার ৪০০ পার, ২০০ নেহি পার হোগা তো ৪০০ ক্যায়সে পার হোগা।

২. আমরা ধরে ফেলেছি ভোট দিতে গিয়ে দেখছে তৃণমূলে পড়ছে, ভোট যাচ্ছে বিজেপির ফুলে। সঙ্গে সঙ্গে হাতেনাতে ধরে ওই মেশিন আমরা পরিবর্তন করিয়েছি। বর্ডারে গিয়ে গিয়ে কেন্দ্রীয় বাহিনী বিজেপির টোটো লাগিয়ে জোর করে ভোট করাচ্ছিল। চাপরাতেও আমরা হাতেনাতে ধরেছি। ওদের এত বড় সাহস আসানসোলে ওদের ক্যান্ডিডেট আমাদের দুজন নেতাকে হুমকি দিচ্ছে। বলছে হয় আমার হয়ে নির্বাচন করো না হলে জেলে পচে মরো। আমাদের লোক বলেছে আমি জেলে পচে মরতে রাজি আছি কিন্তু তোমাদের হয়ে নির্বাচন করব না। কাউকে কাউকে টাকাও দিয়েছে। টাকার প্যাকেট কাকে কাকে দিয়েছে তার নজরে আমরা রাখছি।

৩. মতুয়াদের প্রতি যদি এত ভালবাসা তাহলে কেন নিঃশর্ত অধিকার দিচ্ছেন না কেন এম্পাওয়ার্ড গ্রুপ করেছেন। কেন বলছেন ফর্ম ফিলাপ করে বাবা-মায়ের সার্টিফিকেট বাংলাদেশ থেকে নিয়ে এসো। ৪. এনআরসি করতে দিচ্ছি না, ক্যা আমরা মানি না। নিঃশর্ত করলে করুক আমার কোন আপত্তি নেই। নিঃশর্ত অধিকার। আগে নাগরিকত্ব রাজ্য সরকার দিত। জেলার জেলাশাসককে ইন্টারেস্ট করুন যখন যাকে মনে করবে দিয়ে দেবে। আমেরিকাতে কেউ দশ বছর থাকলে সে একটা গ্রীন কার্ড পায়। আর একটা চক্রান্ত করেছে ইউনিফর্ম সিভিল কোর্ট। সংখ্যালঘু ওবিসি দের কোনো অস্তিত্ব থাকবে না। মোদি যদি আসে ভারতবর্ষে আর কোনদিন নির্বাচন হবে না। ৫. আবার বলছে আমি যতদিন থাকবো ততদিন রিজার্ভেশন কারবো না। মানেটা কি তুমি আর থাকলে তো। আপনি তো থাকছেন না।

৬. সন্দেশখালির মা-বোনেদের অসম্মান করার জন্য টাকা খরচ করছে। বোমা চালাচ্ছে। মদ বেচ্ছে। মায়ের সম্মান চলে গেলে সম্মান ফিরে আসেনা। মা-বোনেদের নিয়েই চক্রান্তের খেলা খেলবেনা। নরেন্দ্র মোদি জেনে রাখো আমাদের এখানে মেয়েরা অনেক সম্মানের সঙ্গে বাস করে। তাদের গায়ে হাত দিতে গেলে লোকে ভয় পায়। তাকে জেলে থাকতে হয় এটা তোমার উত্তর প্রদেশ নয়, যে তপশিলিদের উপর অত্যাচারে দেশের মধ্যে প্রথম। এটা মধ্যপ্রদেশ রাজস্থান নয়, এটা বাংলা। এটা রবীন্দ্র নজরুলের বাংলা এটা রামমোহনের বাংলা এটা বিদ্যাসাগরের বাংলা।

৭. মুটে ওয়ালা যারা কাজ করতো এবং ছোট ছোট গাড়ি। তাদের একটু অসুবিধা হচ্ছে যেহেতু ল্যান্ড পোর্ট দিয়ে গাড়ি যাচ্ছে। বিশ্বজিৎ যদি নির্বাচনে যেতে আমি মমতা বালা ঠাকুর বিশ্বজিৎ বসে সিদ্ধান্ত নেব গরিব লোক গুলোকে যাতে কাজে লাগানো যায়।

৮. আপনাদের এখানে যিনি প্রার্থী ছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ছিলেন কি করেছেন আপনাদের জন্য? কোন কাজ করেনি। নাগরিকত্ব দেবো বলে কোথাও কোথাও টাকা তুলেছে। আপনাদের যিনি বিজেপির প্রার্থী হয়েছেন তাকে বলুন তুমি প্রথম এপ্লাই কর। কেউ জমা করেনি। দুজন বাইরের লোককে নিয়ে এসে জমা করিয়েছে। তার কারণ যারা আইনটা জানে তারা দেখেছে, এরা কি ডেঞ্জারাস।

৯. ঘুম থেকে উঠবেন নো গ্যারান্টি র ছবি, দুপুরবেলা খেতে যাবেন নো গ্যারেন্টির ছবি। রাতে শুতে যাবেন নো গ্যারান্টি ছবি। বিজেপি চোর ডাকাতগুলোকে ভাজপা ওয়াশিং মেশিনে ঢুকিয়ে দিয়ে সাদা করে বের করে নিয়ে আসছে। কোটি কোটিটাকার মালিক গুলো এখ ন ভাজপা করে আর ভাজপায় গেলে তাদের সাত খুন মাফ।

১০. আমাদের প্রিয় প্রার্থী বিশ্বজিৎ বিজেপির এমএলএ ছিল বিজেপির অত্যাচারে বিজেপি ছেড়ে দিয়ে তৃণমূলের প্রার্থী হয়েছে।

১১. এখন কেউ কেউ ভোটের স্বার্থে ঠাকুরবাড়ির কথা বলে কিন্তু ঠাকুরবাড়ির সঙ্গে আমার যোগাযোগ কমপক্ষে ২৫ থেকে ৩০ বছর। শ্রী শ্রী হরিচাঁদ ঠাকুরের জন্মদিনে আমরা ছুটি দিয়েছি আমরা মতুয়া বিকাশ পর্ষদ, ও নমঃশূদ্র বিকাশ পর্ষদ তৈরি করেছি। ঠাকুরনগরকে ঢেলে সাজানো হয়েছে। রাস্তা হয়েছে, ঠাকুরনগরে হরিচাঁদ গুরুচাঁদ বিশ্ববিদ্যালয় হয়েছে। গাইঘাটায় পি আর ঠাকুর সরকারি কলেজ হয়েছে। ২২ কোটি টাকা দিয়ে ইছামতি নদীর উপর সেতু নির্মাণ করা হয়েছে।

Scroll to Top