হাইলাইট
।।ভোটের জন্য বহুরূপী সাজলেও না জানেন রবীন্দ্রনাথ, না জানেন মহাত্মা গান্ধি।।কলকাতা হাইকোর্টের তৃণমূল বিরোধী অবস্থানকে সমর্থন প্রধানমন্ত্রীর।।চরম অটোক্র্যাট মোদি ৮০000 হাজার টাকার ব্যাঙের ছাতা খান।।সুপ্রিম কোর্টের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে চরম বিতর্কিত হিন্দু ধর্মের বিজ্ঞাপন।।এই কদর্য রিমেক ভাজপাকেই মানায়।।প্রধানমন্ত্রীর পদ ব্যবহার করে বিজেপির প্রচার করছেন মো।।ভাজপা প্রার্থী হিরণের ডক্টরেট ডিগ্রি জাল।।বিজেপির দিকে ভোট সুইং হবে না, মোদিকে চ্যালেঞ্জ, দম থাকলে আমার সঙ্গে মুখোমুখি বিতর্ক সভায় বসুন।।থেকে যাওনা গো।।মমতার তরুণ তুর্কি দেবাংশু নীল ঘোড়ায়।।সর্বত্র ভাজপা হারছে, না হলে বলে জগন্নাথদেবও মোদির ভক্ত।।বিজেপির একটা বুথে মদ খাওয়ার খরচ ৫০০০ টাকা।।৬ মাসের মধ্যে শুরু হবে ঘাটাল মাস্টারপ্ল্যানের কাজ।।পুরুলিয়ায় মোদির মঞ্চে ভারত সেবাশ্রমের সাধু।।১ মের বদলে ১ এপ্রিল থেকে ডিএ দেওয়ার সিদ্ধান্ত
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

ভোটের জন্য বহুরূপী সাজলেও না জানেন রবীন্দ্রনাথ, না জানেন মহাত্মা গান্ধি

ভোটের শেষ লগ্নে মোদিবাবুর মত, গান্ধি সিনেমা তোলা না হলে সারা বিশ্ব গান্ধির নামও জানত না ৩৬৫ দিন। ১০ অগাস্ট ২০০৭ : দক্ষিণ আফ্রিকার মানুষের

Read More »
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

কলকাতা হাইকোর্টের তৃণমূল বিরোধী অবস্থানকে সমর্থন প্রধানমন্ত্রীর

রাজ্যসঙ্গীত গাইতে গিয়ে পদে পদে হোচট খেলেন মোদী ৩৬৫দিন। কলকাতা হাইকোর্টের তৃণমূল বিরোধী রায়কে সমর্থন প্রধানমন্ত্রীর। মঙ্গলবার সপ্তম দফার নির্বাচনের প্রচারে বাংলায় এসে তৃণমূল বিরোধী

Read More »
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

চরম অটোক্র্যাট মোদি ৮০000 হাজার টাকার ব্যাঙের ছাতা খান

মোদির স্বৈরতান্ত্রিকত আচরণের বিরুদ্ধে মমতার গর্জন ৩৬৫ দিন। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি লাঞ্চের খরচ প্রায় চার লক্ষ টাকা। উনি যে ব্যাঙের ছাতা বা মাশরুম খান সেটি

Read More »
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

সুপ্রিম কোর্টের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে চরম বিতর্কিত হিন্দু ধর্মের বিজ্ঞাপন

এবার ঘোমটার আড়ালে ভাজপার খ্যামটা নাচ,নিউজ মিডিয়া ছেড়ে সোশাল মিডিয়ায় বিপুল টাকা ঢেলে ৩৬৫ দিন। মোদী হ্যায় তো মুমকিন হ্যায়! তার জেরে জাতীয় নির্বাচন কমিশন

Read More »
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

এই কদর্য রিমেক ভাজপাকেই মানায়

গৌতম ঘোষের ধিক্কার গৌতম ঘোষ। ৩৬৫ দিন। সত্যজিৎ রায়ের হীরক রাজার দেশে ছবিকে ,তার সংলাপকে, সেটকে এবং চরিত্রদের বিকৃত করে যে রাজনৈতিক বিজ্ঞাপন বিজেপি নির্মাণ

Read More »
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

প্রধানমন্ত্রীর পদ ব্যবহার করে বিজেপির প্রচার করছেন মো

মমতার গর্জন, বিজ্ঞাপনেও লিখছে প্রধানমন্ত্রীর রোড শো ৩৬৫ দিন। আগামীকাল মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদির রোড শো উত্তর কলকাতায়। নির্বাচন চলাকালীন প্রধানমন্ত্রীর ব্যাচ লাগিয়ে এই রোড

Read More »
Facebook
Twitter
LinkedIn
WhatsApp
Email
Print

রাজ্যপালের আরও কেলেঙ্কারি আছে পাশে বসাও পাপ, অনেক প্রমাণ আছে, রাজ্যপাল পদত্যাগ করুন আমি আর রাজভবনে যাব না

পদ্মপালকে তীব্র আক্রমণ মমতার

 

৩৬৫ দিন। রাজভবনে কর্মরত মহিলার শ্লীলতাহানির ঘটনায় রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোসের পদত্যাগের দাবি তুললেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা। একই সঙ্গে সন্দেশখালিতে যেভাবে ভারতীয় জনতা পার্টি সাদা কাগজে মহিলাদেরকে ধর্ষণের অভিযোগ ভুল বুঝিয়ে লিখিয়ে নিয়েছিল তার কড়া ভাষায় সমালোচনা করলেন মুখ্যমন্ত্রী। শনিবার আবহাওয়া খারাপ হওয়া সত্বেও হুগলির সপ্তগ্রামের ডায়মন্ড ময়দানে রচনা ব্যানার্জীর সমর্থনে এবং জগৎবল্লভপুরের বড়গাছিয়া হাসপাতাল মাঠে কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের সমর্থনে দুটি সভা করেন মুখ্যমন্ত্রী। জনসভা থেকে মুখ্যমন্ত্রী যা বললেন,

১. মাননীয় রাজ্যপাল, রাজভবনের মহারাজাধিরাজ যেখানে থাকেন। একটা ঘটনা নয় অনেক ঘটনা তাই মহামান্য বলতে পারছি না। বলছে দিদিগিরি নেহি চলেগা। সেটা ঠিক আছে, দাদাগিরিও চলবে না দিদিগিরিও চলবে না। কিন্তু রাজ্যপাল আপনার পদত্যাগ করা উচিত। মহিলাদের অত্যাচার করার আপনি কে? কপিটা আছে আমার কাছে কোন একজন প্রেস আমায় দিয়েছে। আর একটা ভিডিও পেলাম পেনড্রাইভে, আরও কীর্তি কেলেঙ্কারির। আমাকে রাজভবনে ডাকলে আমি আর যাব না। রাজ্যপালের কথা বলতে হলে আমাকে রাস্তায় ডাকবেন আমি রাস্তায় গিয়ে দেখা করে আসবো। কিন্তু যা কেলেঙ্কারি শুনছি আপনার পাশে বসাটাও পাপ। একটা মেয়ে নয় অনেক মেয়ের সর্বনাশ করেছে এরাই হচ্ছে ভাজপা দল।

২. কিছুদিন সন্দেশখালি নিয়ে নাটক করে বেড়ালো। চক্রান্ত বেরিয়ে গেল। রোজ মোদি বাবু বলে, চালাকে যাও। একটা মেয়ের কাছে আত্মসম্মান সবথেকে বড় কথা আত্মসম্মান যদি চলে যায় সেটা ফিরে আসে না। এটাতো জঘন্য অপরাধ সে জানেনা তাকে দিয়ে কী লিখি য়ে নেওয়া হচ্ছে। তারা এখন টিভির কাছে ডেকে ডেকে বলছে আমরা জানতাম না।

৩. ঘরে ঘরে নাকি জল দিচ্ছে মোদি, মিথ্যে বলছে ওরা। বিনা পয়সায় জল দিচ্ছি আমরা। ওরা বলছে, (একটা সার্কুলার তুলে ধরে) প্রত্যেক বাড়িতে যখন জল যাবে কমিউনিটি সেন্টারের নাম করে প্রত্যেক বাড়ি থেকে টাকা কালেকশন করা হবে, সারকুলারে – লেখা আছে। ট্যাক্স বলছেনা বলছে কমিউনিটি কালেকশন। আমরা জলের ওপরে আজ পর্যন্ত ট্যাক্স নিইনি। আমি জলকে বিক্রি করতে দেব না। ওরা বলছে জল পৌঁছে দেবে আর ট্যাক্স দিতে হবে। ট্যাক্স দিতে হবে না। রাজ্য সরকার ট্যাক্স জোগাড় করবে যেন রাজ্য সরকার ওদের চাকর বাকর। এটা একটা বড় মিথ্যে কথা ফাঁস করলাম। মিথ্যে কথা বলার জন্য ওনাকে ভালো করে গেঁথে দিন। ৪. আমি শুনছি আদি সপ্তগ্রামে বিজেপি এবং সিপিএম একটু বেশি লাফালাফি করছে। রচনা জিতে রচনা তৈরি করবে।

৫. প্রথম ফেজে গেছে মাইনাস এ পেয়েছ। দ্বিতীয় ফেজে জিরো আর ফেজ সিতে চোখের জল পড়তে শুরু করেছে। ফোর্থ পেজ আসছে, বাংলা ছাড়ো তোমার দিল্লি কী হবে? পাঞ্জাব মধ্যপ্রদেশ উত্তর প্রদেশ কি হবে? সাউথ ইন্ডিয়ায় তুমি রসগোল্লা পাবে। ইজবার পগার পার।

৬. ডানলপ কোম্পানি এই জায়গাটায় নানান রকম খেলা খেলে। ডানলপ কোম্পানি এই জায়গাটায় নানান রকম খেলা খেলে। ওরা দিল্লিতে বড় বড় বাড়ি বিজেপি নেতাদের দিয়ে রেখেছে। ২০১৬ সালে আমরা বিধানসভায় বিল পাস করি যে ডানলপ ও জেসপ আমরা অধিগ্রহণ করতে চাই। কেন্দ্রীয় সরকার এখনো পর্যন্ত কোনো অনুমতি দেয়নি। দুবার বিল পাস করে পাঠানো হয়েছে। কেন দেয়নি? সেজে বিজেপির লোক সেজে ভাজপা ওয়াশিং মেশিনের লোক। ২০১৬ সাল থেকে এই দুই কোম্পানির প্রত্যেক কর্মচারীদের আমরা দশ হাজার টাকা করে এক্সগারসিয়া দিয়ে যাচ্ছি। অধিগ্রহণও করতে দেবেন না জায়গা বিক্রি করে দেবেন মাফিয়াচক্র চালাবেন এটা হতে পারে না যেকোনো একটা দিক মেনে নেওয়া দরকার। বিজেপিকে চ্যালেঞ্জ করছি কেন ডানলপ ও জেসপের বিলটা আটকে রেখে দিয়েছেন।

৭. হজ যাত্রায় যাতে মুসলিমরা চলে যায় ভোট না দিতে পারে তার জন্য ভোট পিছিয়ে দিয়েছে।

৮. ৩৪ বছর লড়াই করে সিপিএমকে যদি ছুড়ে ফেলতে পারি আপনাকেও লড়াই করে ভারত বর্ষ থেকে ছুড়ে ফেলে দেবো। এরা হচ্ছে জনগণের পকেটমার। জনগণের সব টাকা লুট করেছে। মোদি যাক দেশ থাক। মোদিরা এবার ক্ষমতায় আসছে না নিশ্চিন্ত থাকুন। ৯. প্রধানমন্ত্রী আসবেন বড় বড় ভাষণ দেবেন চলে যাবেন। টিভিতে। খুলতেই পারছি না ইউটিউব তো খুলতেই পারছিনা। জনগণের লক্ষ কোটি টাকা খরচা করে লুটেরা পার্টি বিজেপি শুধু নিজেদের আত্মপ্রচার করে চলেছে। আমি যেই ওদের অ্যাড দেখি আমি টিভিটা বন্ধ করে দিই। কারন আমার মিথ্যে কথা শুনতে ভালো লাগেনা। আমার নামে একটা মেয়েকে ডাকছে বলছে চল চল পৌঁছে দিয়ে আসি। কাঁচা কলা একটা মিথ্যে কথা, ওরা জল পৌঁছায়নি।

১০. আমার এখনো মনে পড়ে ভদ্রেশ্বর জুটমিলের সেই ঘটনা। আমি নিজে একজন জীবন্ত ডিকশনারি। আমার জীবনে এত ঘটনা ঘটেছে তা যদি আমি নথিবদ্ধ করি, তা যে কোন ডিকশনারি থেকে কম হবে না। ভদ্রেশ্বরে ভিখারি পাসোয়ান আজও পর্যন্ত তার বডি পাওয়া যায়নি। মিসিং ও বলতে পারেন কোন বলতে পারেন। সেই সময় আমি তেলেনিপাড়া এসছিলাম। ৭২ ঘণ্টা ধরে অনশন করেছিলাম তাকে খুঁজে পাওয়ার দাবিতে।

১১. এক ঘন্টা আগেই বেরিয়ে পড়তে বাধ্য হয়েছি। এক সময় মনে হয়েছিল এসে পৌঁছাতে পারবো না। ঝড় বৃষ্টি বা বিদ্যুৎ হলে গাছের পাশে কেউ দাঁড়াবেন না কোন ইলেকট্রিকের পোলের পাশে কেউ দাঁড়াবেন না।

১২. ভাজপার একটা নেতা বলে তিন মাস বাদে সব প্রকল্প বন্ধ করে

দেব, ক্ষমতা থাকলে হাত দিয়ে দেখিস।

১৩. বাংলা এন আর সি, ক্যা ইউনিফর্ম সিভিল কোর্ট করতে দেবো না। বাংলায় সবাই একসঙ্গে থাকবে।

১৪. কল্যাণ ব্যানার্জী, আমার ভাতৃসম। ও একটু চিৎকার করে কথা বলে ভাবেন ওর গলার কী জোর। সংসদে ও একা দাঁড়ায় ওর গলার জোরে কিছুতেই ওকে উপড়ে ফেলতে পারেনা।

Scroll to Top