হাইলাইট
।।উফ কী গরম ! Part-189।।রাজ্য পুলিশের ডিজি পদে ফিরলেন রাজীব কুমার।।টালা ঝিলপার্ক, রাসেল স্ট্রিট, পাটুলিতে হচ্ছে স্ট্রিট ফুড হাব।।মানবিক মুখ্যমন্ত্রী : প্রাক্তন কারামন্ত্রীর চিকিৎসার দায়িত্ব গ্রহণ।।নামী রেস্তোরাঁর বিরিয়ানিতে বিষ রং পুরসভার জরিমানা ৩ লক্ষ টাকা।।উফ কী গরম ! Part-188।।শপথের জন্য রাজ্যপালকে আর্জি,রাজ্যপাল টালবাহানা করলে শপথ পাঠ করাবেন অধ্যক্ষ।।মিথ্যা ন্যারেটিভ ছড়িয়ে বাংলায় দাঙ্গার চক্রান্ত, অসমের গরু পাচারের ভিডিও হুগলির ঘটনা বলে প্রচার।।আকাশ দখল ঠেকাতে কেএমসি’র নয়া নীতি, তৈরি হবে নো হোর্ডিং জোন।।ত্রাতা মার্তিনেজ, কলম্বিয়াকে হারিয়ে কোপা আমেরিকা চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা।।গাছেদের সুরক্ষায় কলকাতায় চালু হবে ট্রি অ্যাম্বুলেন্স।।শতবর্ষে বাদল সরকার,শহরে চলছে বাদল থিয়েটার মেলা।।আততায়ী কে? ২০ বছরের মেধাবী ছাত্র টমাস ম্যাথিউ ক্রুকস।।উফ কী গরম ! Part-187।।মার্কিন বন্দুকবাজের হাতে খুন ৪ প্রেসিডেন্ট, ৮ অল্পের জন্য রক্ষা
বিবি
Avinash

উফ কী গরম ! Part-189

উফ কী গরম ! HOT BIKINI নিকোল মিনেতি ৩৬৫ দিন। কম বয়সেই উচ্চতার শিখরে উঠেছিলেন।এক একটা সিঁড়ি পার করে এখন তিনি অত্যন্ত জনপ্রিয় মুখ।টেলিভিশন থেকে

Read More »
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

রাজ্য পুলিশের ডিজি পদে ফিরলেন রাজীব কুমার

৩৬৫ দিন। ফিরে এলেন রাজীব কুমার। ফিরলেন রাজ্য পুলিশের ডিরেক্টর জেনারেল পদে। লোকসভা নির্বাচনের পরে রাজ্য পুলিশের ডিরেক্টর জেনারেল রাজীব কুমারকে সরিয়ে দিয়েছিল জাতীয় নির্বাচন

Read More »
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

টালা ঝিলপার্ক, রাসেল স্ট্রিট, পাটুলিতে হচ্ছে স্ট্রিট ফুড হাব

৩৬৫ দিন। কলকাতা শহরের স্ট্রিট ফুডের সংস্কৃতি দীর্ঘদিনের। ডেকারস লেন থেকে শুরু করে টেরিটি বাজারের স্ট্রিট ফুড বিশ্বের যে কোন দেশের স্ট্রিট ফুডের সঙ্গে পাল্লা

Read More »
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

মানবিক মুখ্যমন্ত্রী : প্রাক্তন কারামন্ত্রীর চিকিৎসার দায়িত্ব গ্রহণ

৩৬৫দিন। মানবিক মুখ্যমন্ত্রী। রাজ্যের প্রাক্তন কারামন্ত্রী তথা আরএসপির নেতা বিশ্বনাথ চৌধুরীর চিকিৎসার জন্য উদ্যোগী হলেন মুখ্যমন্ত্রী। ৭ বারের আরএসপি বিধায়ক দীর্ঘ দিন ধরে ক্যানসারে ভুগছেন।

Read More »
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

নামী রেস্তোরাঁর বিরিয়ানিতে বিষ রং পুরসভার জরিমানা ৩ লক্ষ টাকা

৩৬৫ দিন।কলকাতা পুরসভার অভিযানে সামনে এল চাঞ্চল্যকর তথ্য।পার্ক সার্কাসের নামি বিরিয়ানির দোকানে মেশানো হচ্ছে রং।সেই রং যে বিষাক্ত তা ধরা পড়ল পরীক্ষা করে।রেস্তরাঁটির বিরিয়ানির নমুনা

Read More »
বিবি
Avinash

উফ কী গরম ! Part-188

উফ কী গরম ! HOT BIKINI মিডিয়াম জিওভেনালি ৩৬৫ দিন। জনপ্রিয় মডেল তো বটেই।তবে বডি বিল্ডার হিসেবেই বেশি বিখ্যাত তিনি।কিভাবে নিজের শরীর-স্বাস্থ্য সুস্থ রাখেন তিনি

Read More »
Facebook
Twitter
LinkedIn
WhatsApp
Email
Print

ভারতকে হিন্দু রাষ্ট্র করার অপচেষ্টা আটকানো গেছে

দেশে ফিরেই মোদি সরকারের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অমর্ত্য সেন

৩৬৫ দিন। ভারতকে হিন্দু রাষ্ট্র করার অপচেষ্টা কিছুটা আটকে দেওয়া গিয়েছে - লোকসভা ভোটে গোটা দেশে ভাজপার খ ারাপ ফল নিয়ে খোঁচা অমর্ত্য সেনের। শনিবার বোলপুরে নোবেল জয়ী অর্থনীতিবিদ বলেন, ওরা (ভাজপা) ভেবেছিল ধর্মকে সামনে রেখে ভোট হবে। কিন্তু ওরা অনেক জায়গাতেই হেরেছে। ধর্মনিরপেক্ষ দল জিতেছে। এটা ভারতের গণতন্ত্রের পক্ষে শুভ লক্ষ্মণ। প্রতীচী ট্রাস্টের তরফে 'কেন স্কুলে যাই সহযোগিতার সহজ পাঠ' আলোচনা চক্রের আয়োজন করা হয়। সেখানে আমন্ত্রিত ছিলেন অমর্ত্য। আলোচনায় ছিলেন অধ্যাপক জঁ দ্রেজ। এ ছাড়াও রাজ্যের বিভিন্ন স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষিকা এবং পড়ুয়ারা ওই আলোচনাচক্রে অংশ নিয়েছিলেন। সেখানেই নাম না করে ভাজপা এবং মোদিকে তীব্র আক্রমণ করেন তিনি। অমর্ত্য বলেন, 'ওরা এটা মানতে পারল না যে, যেখানে বড় মন্দির তৈরি হল, সেখানে এক জন সেকুলার দলের প্রার্থী, হিন্দুরাষ্ট্র গড়ার প্রার্থীকে হারিয়ে দিয়েছেন। দেখুন, ভারত একেবারেই ধর্মনিরপেক্ষ দেশ নয়। তবে বহু ধর্মের দেশ তো বটেই।' লোকসভায় ভাজপার আশানুরূপ ফল না হওয়াকে বিঁধে তিনি বলেন,, 'স্কুলে পর্যন্ত আলোচনা পৌঁছে গিয়েছিল! ভারতকে কী ভাবে হিন্দুরাষ্ট্র করা যায় সেই আলোচনা হত। কিন্তু, আমাদের জানা দরকার, হিন্দু-মুসলমানের মধ্যে পার্থক্য বাচ্চাদের মধ্যে একেবারেই নেই। তাই দেশে লোকসভা নির্বাচনে ভারতকে হিন্দুরাষ্ট্র করার প্রচেষ্টা থেকে আটকানোগেল।' বস্তুত, এই প্রথম নয়, দেশে ফেরার পর গত কয়েকদিনে একাধিকবার মোদি সরকারের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন অমর্ত্য সেন। এর আগে তিনি ভাজপাকে আক্রমণ করে বলেছিলেন, ধর্মীয় মেরুকরণের মাধ্যমে ভাজপা ভারতের বহুত্ববাদী সংস্কৃতি ধ্বংস করতে চাইছিল দেশের মানুষ বিভাজন চায় না। ভোটে তার জবাব মিলেছে। এদিন ভাজপার খারাপ ফল নিয়ে খোঁচার পাশাপাশি ন্যায় সংহিতা নিয়েও সমালোচনা করেন তিনি। অমর্ত্য বলেন, 'কোনও কিছু আকষ্মিক করা যায় না। সংবিধান পরিবর্তন বড় ব্যাপার। এর জন্য আলোচনা দরকার সব পক্ষের সঙ্গে। তা না করে একতরফা সিদ্ধান্ত চাপিয়ে দেওয়া যায় না। এতে দীর্ঘ মেয়াদি ক্ষতি হয়।

সাম্প্রদায়িক শক্তিকে আক্রমণ করতেই টার্গেটে অমর্ত্য বারবার ভাজপার সাম্প্রদায়িক শক্তির বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেন। তিনি কখনো মোদির ধর্মের রাজনীতিকে মেনে নেয়নি। যার জেরে মোদির মন্ত্রিসভার সদস্য থেকে আরম্ভ করে আরএসএস এর এজেন্ট হিসেবে পরিচিত বিশ্বভারতী প্রাক্তন উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তীর আক্রমণে পড়তে হয়েছে তাকে। কেন্দ্রীয় সরকার ও ভাজপার বিরুদ্ধে সরব হতেই বিদ্যুতের নির্দেশে ২০২০ সালে শান্তিনিকেতনে নোবেল জয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেনের প্রতীচী বাড়ির দখলের চেষ্টা শুরু করে বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ। প্রফেসর সেনের পাশে দাঁড়ান খোদ বাংলার মুখ্যমন্ত্রী। মমতা নিজে এগিয়ে অমর্ত্য সেনের সঙ্গে দেখা করেন। জমির সমস্ত তথ্য তুলে দেন নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদের হাতে। অমর্ত্য সেনের নিরাপত্তার ব্যবস্থা করেন মমতা। তাকে জেড প্লাস সিকিউরিটি দেওয়া হয় রাজ্যের তরফে। পরবর্তীতে ভূমি ও ভূমি রাজস্ব দপ্তরের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয় প্রতীচীর যে জমি বর্তমানে অমর্ত্য সেনের অধীনে রয়েছে তার সবটাই অর্থনীতিবিদের বাবার নামে রয়েছে। এক্ষেত্রে বিদ্যুৎ চক্রবর্তীর নির্দেশে অমর্ত্য সেনের বিরুদ্ধে যে জমি দখলের দাবি উঠছিল তা খারিজ হয়ে যায়।

নোবেল প্রাপ্তি নিয়েও প্রশ্ন তোলেন বিদ্যুৎ দিলীপ ঘোষ থেকে আরম্ভ করে শুভেন্দু অধিকারী প্রায় প্রত্যেকেই টার্গেট করেন প্রফেসের সেনকে। এমনকি তার নোবেল প্রাপ্তি নিয়েও প্রশ্ন তোলা হয়। বিদ্যুৎ চক্রবর্তী বলেন, অমর্ত্য সেন নোবেল লরিয়েট নন। আপনারা হয়ত জানেন, উনি নোবেল প্রাইজ পাননি। উনি নিজেকে দাবি করেন নোবেল প্রাইজ পেয়েছেন বলে।' এখানেই শেষ নয়, তাকে পরিযায়ী পাখি বলেও অপমানিত করা হয়। নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্যকে টার্গেট করায় গোটা পৃথিবীর নোবেল জয়ীরা মোদির বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে অমর্ত্য সেনের পাশে দাঁড়ান। অর্মত্য সেনের প্রতি বিশ্বভারতীর আচরণের প্রতিবাদ করে এবং উপাচার্যের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবিতে রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মুকে দেশ-বিদেশের - ৩০২ জন শিক্ষাবিদ চিঠি পর্যন্ত দেওয়া হয়।

Scroll to Top