হাইলাইট
।।ডার্বির শতবর্ষে জয়ী ইস্টবেঙ্গল।।টাস্কফোর্সের নির্দেশ বিক্রেতাদের, খুচরো,পাইকারির মধ্যে ৫ টাকার বেশি লাভ নয়।।তৃণমূলের আইনজীবী সংগঠনের সম্মেলনে অভিযোগ, ভাজপা, সিপিএম আদালত চালাচ্ছে।।।উফ কী গরম ! Part-186।।মুখ্যমন্ত্রী জানালেন ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে অমিতাভকে আমন্ত্রণ।।মুখ্যমন্ত্রীর বিরোধীদের আক্রমণে, ভোটে এজেন্সি আর কুৎসার জবাব দিল মানুষ।।উফ কী গরম ! Part-185।।উফ কী গরম ! Part- 184।।উফ কী গরম ! – 183।।ব্যাঙ্কশাল কোর্টের সরকারি নাম বদল।।হাওড়া-সেক্টর ৫ মেট্রো এই বছরই।।উফ কী গরম ! – 182।।মানিকতলায় জিততে চেয়ে ঘুষ দিতে চেয়েছেন ভাজপা প্রার্থী কল্যাণ চৌবে।।তেলাপিয়া নিরাপদ, খেলে ক্যান্সার হয় না।।সবজির অগ্নিমূল্য নিয়ন্ত্রণে নবান্নে জরুরি বৈঠক মুখ্যমন্ত্রীর
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

ডার্বির শতবর্ষে জয়ী ইস্টবেঙ্গল

ইস্টবেঙ্গল: ২ (বিষ্ণু, জে সিন) মোহনবাগান: ১ (সুহেল) ৩৬৫ দিন। এই মরশুমে কলকাতা ফুটবলের প্রথম প্রেস্টিজ ফাইট দাপটের সঙ্গে জিতল ইস্টবেঙ্গল। একই সঙ্গে আজ যুবভারতীতে

Read More »
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

টাস্কফোর্সের নির্দেশ বিক্রেতাদের, খুচরো,পাইকারির মধ্যে ৫ টাকার বেশি লাভ নয়

৩৬৫ দিন। অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধির কারণে কড়া নজরদারি চালানোর নির্দেশ দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। এরপরই টাস্ক ফোর্স, কলকাতা পুলিশের এনফোর্সমেন্ট ব্রাঞ্চ যৌথ উদ্যোগে শহরের বিভিন্ন বাজারে হানা দিচ্ছে

Read More »
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

তৃণমূলের আইনজীবী সংগঠনের সম্মেলনে অভিযোগ, ভাজপা, সিপিএম আদালত চালাচ্ছে।

৩৬৫ দিন।আদালতকে বিরোধীরা রাজনীতিতে ব্যবহার করছে ও তৃণমূলকে বার বার বিপদে ফেলার চেষ্টা করছে ।তাই রাজ্য জুড়ে সমস্ত আদালতে বিরোধীদের এই চক্রান্তের জন্য তৈরী থাকতে

Read More »
বিবি
Avinash

উফ কী গরম ! Part-186

উফ কী গরম ! HOT BIKINI জর্জিয়া পালমাস ৩৬৫ দিন। সইতালির ১০ জন মডেল-অভিনেত্রীর মধ্যে একজন জর্জিয়া পালমাস।২০০০ সালে মিস ওয়ার্ল্ড এর প্রতিযোগি ছিলেন।তবে সেই

Read More »
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

মুখ্যমন্ত্রী জানালেন ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে অমিতাভকে আমন্ত্রণ

কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্বোধনে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে অমিতাভ বচ্চন। ফাইল ছবি ৩৬৫ দিন। আগামী কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের জন্য আরও একবার অমিতাভ বচ্চনকে আমন্ত্রণ জানালেন মমতা।

Read More »
৩৬৫ দিন Exclusive
Avinash

মুখ্যমন্ত্রীর বিরোধীদের আক্রমণে, ভোটে এজেন্সি আর কুৎসার জবাব দিল মানুষ

৩৬৫ দিন। অনেক চক্রান্ত হয়েছিল। এক দিকে এজেন্সি, এক দিকে বিজেপি। মানুষই সব রুখে দিচ্ছেন। সামাজিক দায়বদ্ধতা বেড়ে গেল। আমাদের আরও বেশি করে মানুষের পাশে

Read More »
Facebook
Twitter
LinkedIn
WhatsApp
Email
Print

একদিকে উ. পূর্বে ভাজপার মদতে খ্রিস্টান দাঙ্গা, অন্যদিকে মমতায় গভীর আস্থা খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের

৩৬৫ দিন। একদিকে যখন মণিপুর, মিজোরাম, নাগাল্যান্ডে একের পর এক চার্চে আগুন ধরিয়েছে ভারতীয় জনতা পার্টি আশ্রিত দুষ্কৃতীরা, তখনই সেই ঘটনা তীব্র প্রতিবাদ করেছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা। মঙ্গলবার জলপাইগুড়ির মার্সি ফেলোশিপ চার্চে গিয়ে সেখানকার ফাদার সহ অন্যান্য খ্রিস্টান ধর্ম গুরুদের সঙ্গে বৈঠক করেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আমি হিন্দু মুসলমান খ্রিস্টান, আদিবাসী রাজবংশী সবার অনুষ্ঠানে যাই। আমি চাই রাজ্যে সবাই যেন শান্তিপূর্ণভাবে বসবাস করে। মনে রাখবেন শান্তির থেকে বড় আর কিছু হয় না। যেভাবে মণিপুরে ২০০ টি চার্জ জ্বালিয়ে দেওয়া হয়েছে, তার তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি।’ একই সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী এদিন বাংলার সঙ্গে কেন্দ্র যেভাবে লাগাতার বঞ্চনা করে যাচ্ছে তার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন। সংখ্যালঘুদের উপর অত্যাচার করছে। মুখ্যমন্ত্রী বলেন,’ আপনাদের পাশে রয়েছে বাংলার সরকার। ১০০ দিনের কর্মীদের বেতন আমরা মিটিয়েছি। পাহাড় বাসি সমস্যার সমাধানও আমরা করেছি। কেন্দ্রের বঞ্চনায় যারা কাজ হারিয়েছে তাদের কাজের ব্যবস্থা করেছি আমরা। কিন্তু আদর্শ আচরণবিধি চলছে বলে সবটা বলতে পারছি না।’ প্রসঙ্গত এদিন আদিবাসীদের সঙ্গে গামছা মাদলের তালে পা মেলান মুখ্যমন্ত্রী। বার্তা দেন শান্তির। চালসার চার্চে গিয়ে ফাদার সহ প্রত্যেকের সঙ্গে জনসংযোগ করেন মুখ্যমন্ত্রী। বাংলার মুখ্যমন্ত্রীকে হাতের সামনে পেয়ে সকলেই উদ্বেলিত হয়ে ওঠেন। গোটা ক্রিস্টান সমাজ বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর কাজের প্রশংসা করেন।
মুখ্যমন্ত্রী অনিত থাপা বৈঠক
এদিন মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করতে আসেন গোর্খা প্রজাতান্ত্রিক মোর্চার সুপ্রিমো অনিত থাপা। বেশ কিছুক্ষণ কথা হয় দুজনের মধ্যে।কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে চা বাগানের কর্মীদের সঙ্গে অসহযোগিতার অভিযোগ তুলে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘এখানে বহু চা বাগান আছে। যেখানে ওরা ছোট ছোট ফার্মিং করেন। কেন্দ্র তা বন্ধ করে দিয়েছে। মালিকদের বলে ওদের থেকে চা কেনা বন্ধ করে দিয়েছে। আমি মলয়কে (মন্ত্রী মলয় ঘটক) বলেছি, ও এসে বৈঠক করবে। আমরা চা শ্রমিকদের জন্য বিকল্প ব্যবস্থা করব। পাট শিল্পে বাংলা ১ নম্বর। ‌ আমি এটা বন্ধ হতে দেব না।’ চা বাগানের শ্রমিকদের সমস্যা নিয়েও অনিতের সঙ্গে কথা হয়েছে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। এদিন মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘অনিত থাপা দেখা করতে এসেছিল। ও জানাল, চা বাগানে যে ইন্ডিভিজুয়াল ফান্ডিং করা হয়, সেটা ব্যান করে দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। ১০ লক্ষের বেশি গরীব লোক বেকার হয়ে গিয়েছে। বলছে নাকি পেস্টিসাইড ছিল। থাকলে সেটা ওরা আগে দেখেনি কেন? কোন বিকল্প ব্যবস্থা না করে কিভাবে ফান্ডিং বন্ধ করতে পারে কেন্দ্র? আমার কাছে চাল না থাকলে রুটি খাই, রুটি না থাকলে কেক খাই। ‌ কোন সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে বিকল্প ব্যবস্থা তো নিতে হয়। এখন আদর্শ আচরণবিধির আগুহ আছে। তাই মন চাইলেও কিছু করতে পারছি না। আমি শুনে রাখলাম ভোটের পর আমি চা শ্রমিকদের জন্য ব্যবস্থা করব।’
৫ হাজারের বেশি বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ঝড়ে
জলপাইগুড়ি, আলিপুরদুয়ার, ময়নাগুড়ি, কোচবিহারের একাংশ মিলিয়ে মোট ৫ হাজার বাড়ি নষ্ট হয়েছে ঝড়ের ফলে। মঙ্গলবার জলপাইগুড়ির মার্সি চার্চের অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার পর এ কথাই জানালেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘পাঁচ হাজার বাড়ি নষ্ট হয়েছে। কোনও কোনও বাড়ি পুরোপুরি ধ্বংস হয়ে গিয়েছে। কোনও বাড়ি অর্ধেক ভেঙেছে, আবার কোনও বাড়িতে অল্প ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। সব মিলিয়ে জলপাইগুড়ি, কোচবিহার এবং আলিপুরদুয়ারে পাঁচ হাজার বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এই ঝড়ে। আমি এই দু’দিনে সেটাই দেখছিলাম। তিন জেলা নিয়েই প্রশাসনিক স্তরে আলোচনা হয়েছে। বেশ কিছু চাষের জমিও নষ্ট হয়েছে। প্রশাসন সেগুলো দেখবে।’

Scroll to Top